দুই ভাই মিলে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লালমনিরহাট
প্রকাশিত: ০৩:৫১ পিএম, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
ফাইল ছবি

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত বুধবার উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের পিত্তিফাটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত জাহেদুল ইসলাম নামে এক যুবককে শুক্রবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আরেক আসামি জাহেদুলের খালাতো ভাই আয়নাল হক পলাতক রয়েছেন।

মেয়েটি স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। গ্রেফতার জাহেদুল ইসলাম উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের পিত্তিফাটা গ্রামের হোসেন ফকিরের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার সন্ধ্যার পর বাড়ির পাশের এক মুদি দোকান থেকে ফিরছিল মেয়েটি। এ সময় প্রতিবেশী হোসেন ফকিরের ছেলে জাহেদুল ও তার খালাতো ভাই আয়নাল হক মেয়েটির মুখ চেপে ধরে রাস্তার পাশে নিয়ে যায় এবং দুজন মিলে ধর্ষণ করে। এতে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় তাকে প্রথমে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। ওইদিন রাতে মেয়েটির মামা বাদী হয়ে হাতীবান্ধা থানায় জাহেদুল ইসলাম ও আয়নাল হকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার সিন্দুর্না হাটখোলা বাজার থেকে জাহেদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেফতার জাহিদুলকে লালমনিরহাট জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

রবিউল হাসান//আরএআর/এমকেএইচ