জেলখানায় বাবাকে দেখতে গিয়ে মা হারাল শিশুটি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাগুরা
প্রকাশিত: ০৯:০৭ পিএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

স্বামীর সঙ্গে জেলখানায় শিশুকন্যাসহ দেখা করে বাড়ি ফেরা হলো না গৃহবধূ রেশমার। পথে অটোরিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে মা রেশমা খাতুনের (২৪) মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

এ সময় মা রেশমার কোলে জুঁই নামে ১০ মাস বয়সী শিশুকন্যাটি ছিল। মঙ্গলবার বিকেলে শহরের স্টেডিয়াম এলাকায় মাগুরা-ঝিনাইদহ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। শিশুকন্যাটি সুস্থ আছে। ১০ মাস বয়সী শিশুকন্যাকে নিয়ে রেশমা শহরের পিটিআই পাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তার পরিবারের অন্য কারও খবর পাওয়া যায়নি।

মাগুরা সদর থানা পুলিশের ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে মা রেশমা খাতুন ১০ মাসের শিশুকন্যা জুঁইকে নিয়ে স্বামী রাব্বি ইসলামের সঙ্গে জেলখানায় দেখা করতে যান। শিশুটির বাবা রাব্বি ইসলাম কয়েকটি মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে বন্দি।

জেলগেট থেকে স্বামীর সঙ্গে দেখা করে ফেরার পথে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ওড়নার একপাশ ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার চাকার সঙ্গে পেঁচিয়ে রেশমা খাতুন গুরুতর আহত হন। দ্রুত তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তবে তার কোলে থাকা শিশুকন্যার শরীরে কোনো আঁচড় লাগেনি। শিশুটি বর্তমানে মাগুরা সদর থানার এক নারী পুলিশ সদস্যের কাছে আছে। পরিবারের কোনো আত্মীয়-স্বজন না আসা পর্যন্ত শিশুটি পুলিশের দায়িত্বে থাকবে।

মাগুরা জেলা কারাগারের জেল সুপার মো. তায়েফ উদ্দিন মিয়া বলেন, নিহত গৃহবধূর মরদেহ দাফন ও শেষ দেখার জন্য জেলে বন্দি স্বামী রাব্বির পরিবারের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের কাছে প্যারোলে মুক্তির আবেদনের সুযোগ রয়েছে। প্যারোলে মুক্তির জন্য আবেদন করলে সাময়িক মুক্তি দেয়া যেতে পারে। এছাড়া বিকল্প কোনো পথ নেই।

আরাফাত হোসেন/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :