পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ায় স্ত্রীকে হত্যা, স্বামীর যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ০৬:৩১ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলায় পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ায় স্ত্রী বিউটি আক্তারকে (২৬) হত্যার দায়ে স্বামী রাসেল মিয়াকে (৩৫) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও তাকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বুধবার নেত্রকোনা জেলা ও দায়রা জজ কে এম রাশেদুজ্জামান রাজা জনার্কীর্ণ আদালতে আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত রাসেল মিয়া মোহনগঞ্জ উপজেলার বড়তলী-বানিহারী ইউনিয়নের বালিয়াজুরা গ্রামের মৃত জুবেদ আলীর ছেলে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলার বড়তলী বানিহারী ইউনিয়নের বালিয়াজুরা গ্রামের মৃত জুবেদ আলীর ছেলে রাসেল মিয়া ৬ বছর আগে পার্শ্ববর্তী কাশিপুর গ্রামের দুলাল মিয়ার মেয়ে বিউটি আক্তারকে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে দুটি সন্তান জন্ম নেয়। ঘটনার কিছুদিন আগে বিউটি পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ২০১৭ সালের ১১ জুলাই এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বাধে।

ঝগড়ার একপর্যায়ে স্বামী রাসেল ধারালো দা দিয়ে স্ত্রী বিউটি আক্তারকে কুপিয়ে হত্যা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। ওইদিন রাতেই নিহতের বাবা দুলাল মিয়া বাদী হয়ে জামাই রাসেল মিয়াকে আসামিকরে মোহনগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে একই বছরের ৬ সেপ্টেম্বর রাসেল মিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

বিজ্ঞ বিচারক ৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি রাসেল মিয়ার বিরুদ্ধে অপরাধ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আজ এই রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে পিপি ইফতেখার উদ্দিন আহাম্মদ মাসুদ এবং আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট দিলোয়ারা বেগম মামলাটি পরিচালনা করেন।

কামাল হোসাইন/আরএআর/পিআর