মোবাইল চুরির অপবাদ দেয়ায় কিশোরীর আত্মহত্যা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি শ্রীপুর (গাজীপুর)
প্রকাশিত: ০৬:১০ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
প্রতীকী ছবি

গাজীপুরের শ্রীপুরে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে শাহিদা আক্তার (১৬) নামে এক কিশোরীকে মারধরের পরদিন তার ঝুলন্ত মরদেহ পাওয়া গেছে। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার আক্তাপাড়া গ্রামে নিজ বাড়ির একটি কক্ষ থেকে ওই কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত শাহিদা আক্তার উপজেলার আক্তাপাড়া গ্রামের সিরাজুল হক গাজীর মেয়ে। মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত একই গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে সুমন (৩৫) ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন।

নিহত শাহিদা আক্তারের ছোট ভাই পারভেজ জানায়, তাদের বাড়ির পার্শ্ববর্তী সুমনের ঘর থেকে বৃহস্পতিবার একটি মোবাইল ফোন চুরি হয়। মোবাইল উদ্ধারে সুমন শাহিদাকে সন্দেহ করে চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। শাহিদা চুরির সঙ্গে নিজের সম্পৃক্ততা অস্বীকার করলে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সুমন ও তার স্ত্রী লাকী আক্তার তাকে মারধর করে।

এদিকে এ ঘটনায় শুক্রবার সকালে বাজারে যাওয়ার সময় পথরোধ করে পারভেজও মারধর করে সুমন। পারভেজকে মারধর করতে দেখে তার দাদি নবিরন নেসা (৭০) এগিয়ে আসলে তাকেও মারধর করে সুমন। এ ঘটনায় লোকলজ্জার ভয়ে তার বোন গত রাত থেকেই মানসিকভাবে ভেঙে পরে। পরে মানসিক চাপ সইতে না পেরে শাহিদা নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

শ্রীপুর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম জানান, নিহত কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিবার থেকে যদি কোনো অভিযোগ আসে তাহলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শিহাব খান/আরএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :