রেশন নিয়ে ভ্যানচালকের বাড়িতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৮:২৯ পিএম, ১৪ মার্চ ২০১৯

নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার ভ্যানচালক কামরুল ইসলামের অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) গাজী মো. রবিউল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সদরপুর উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নে কামরুল ইসলামের বাড়ি গিয়ে নিজের পাওয়া মাসিক রেশনের পুরোটাই ওই পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। চাল, ডাল, আটা ও চিনিসহ যাবতীয় খাদ্যসামগ্রী কামরুলের পরিবারের হাতে তুলে দেন তিনি।

কামরুল হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে বলেও জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। তার সঙ্গে কামরুলের বাড়ি যান সদরপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ লুৎফর রহমান, এসআই মো. কামরুজামানসহ পুলিশের কর্মকর্তারা।

সদরপুর উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের মৃত ইছহাক তালুকদারের ছেলে ভ্যানচালক কামরুল ইসলামকে (১২) নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। গত ২ মার্চ ওই ইউনিয়নের শৌলডুবী মজুমদার বাজার এলাকার সরিষা খেতের মধ্য থেকে অর্ধগলিত কামরুলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরে নিহত কামরুলের মা আসমা বেগম বাদী হয়ে সদরপুর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় মো. জাকির হোসেন, মো. হান্নান মাতব্বর ও মো. ইউনুস নামের তিনজনকে আসামি করা হয়। এর মধ্যে মো. জাকির হোসেন, মো. হান্নান মাতব্বরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। একই সঙ্গে ইউনুছকে গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানায় পুলিশ।

ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) গাজী মো. রবিউল ইসলাম বলেন, ‘ভ্যানচালক ছেলেকে হারিয়ে অসহায় হয়ে পড়ে পরিবারটি। নিজের দায়িত্ব ও কর্তব্যের জায়গা থেকে পরিবারটির পাশে দাঁড়িয়েছি আমি। একই সঙ্গে এ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে। এরই মধ্যে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার পলাতক অপর আসামিকেও গ্রেফতার করা হবে। অসহায় পরিবারটিকে সব ধরনের সহায়তা দেবে পুলিশ।’

বি কে সিকদার সজল/এএম/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :