দ্রুতগতিতে গতিরোধক পেরোতে গিয়ে উল্টে গেল সাকুরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বরগুনা
প্রকাশিত: ০২:৩৯ পিএম, ১৬ মার্চ ২০১৯

বেপরোয়া গতিতে গতিরোধক পার হতে গিয়ে বরগুনায় একটি যাত্রীবাহী বাস উল্টে যায়। দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া ওই বাসে থাকা অর্ধশত যাত্রীর মধ্যে অন্তত ২০ জন অহত হলেও কোনো প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি।

শনিবার সকালে ঢাকা-কুয়াকাটা মহাসড়কের বরগুনার আমতলী উপজেলার ঘঠখালী নামক স্থানে সাকুরা পরিবহনের একটি বাস এ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সহযোগিতায় আহতদের উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহতদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আহতদের মধ্যে লিটু দে (৩৫), মশিউর রহমান (২১), মামা নৈ (৪৫), রিপন (৪০), আমেনা বেগম (৬০), জোবেদ আলী (৫০), নাহিদ (৭০), নাজমা (৩৫), জান্নাতি (৩), মোস্তফা (৫০), লাভলী (৩০), জাহানারা (৪৫), সাঈদুল (৪৫), হোসনেয়ারা (৩৫), তাসলিমা (৫০), আসমা (৩৫), ইউসুব (৬), মোনাই (৬০), আবজাল (২৪) ও জান্নাতি (৪০) এদের নাম জানা গেছে।

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত কয়েকজন যাত্রী জানান, ঢাকা থেকে কুয়াকাটাগামী সাকুরা পরিবহনের বাসটি বেপরোয়া গতিতে গতিরোধক অতিক্রম করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়।

আমতলী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলাউদ্দিন মিলন জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশের সহযোগিতায় আহতদের উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

সাইফুল ইসলাম মিরাজ/এফএ/এমএস