পিকআপের ধাক্কায় স্কুলছাত্রীর পা বিচ্ছিন্ন, ক্ষোভে সড়ক অবরোধ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ১২:৫৪ পিএম, ২০ মার্চ ২০১৯

যশোরের নাভারনে বুধবার সকালে স্কুলভ্যানে পল্লী বিদ্যুতের পিকআপের ধাক্কায় মোফতাহুল জান্নাত নিপা নামে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। দুর্ঘটনায় তার একটি পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে এক ঘণ্টা অবরোধ করে রাখে ও একটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়।

আহত নিপা নাভারন বুরুজবাগান গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শিক্ষার্থীবাহী স্কুলভ্যানটি স্কুলের দিকে যাওয়ার সময় পল্লী বিদ্যুতের একটি পিকআপ সজোরে ধাক্কা দিলে স্কুলভ্যানটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। এ সময় মোফতাহুল জান্নাত নিপা নামে ওই শিক্ষার্থীর এক পা মারাত্মকভাবে জখম হয়।

blockad

পুলিশ জানায়, একটি ভ্যানে চড়ে তিন ছাত্রী স্কুলে আসছিল। এ সময় যশোর থেকে দ্রুত গতিতে আসা পল্লী বিদ্যুতের একটি পিকআপ ভ্যান ছাত্রীদের বহনকারী ভ্যানে ধাক্কা দেয়। এতে তারা ভ্যান থেকে ছিটকে পড়ে মারাত্মক আহত হয়।

এ সময় স্থানীয়রা এসে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে নাভারন ও পরে নিপার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে নিপার ডান পা শরীর কেটে বাদ দেয়া হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

এদিকে এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী বেনাপোল যশোর সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে এক ঘণ্টা অবরোধ করে রাখে এবং একটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল, পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের আশ্বাসে সাড়ে ১০টার দিকে অবরোধ তুলে নিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

মিলন রহমান/এফএ/জেআইএম