মুয়াজ্জিনকে চাপা দিল ইউনিক পরিবহন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাগুরা
প্রকাশিত: ০৫:৫৩ পিএম, ২০ মার্চ ২০১৯

মাগুরায় ইউনিক পরিবহনের বাসের চাপায় এক মসজিদের মুয়াজ্জিন প্রাণ হারিয়েছেন। বুধবার দুপুরে মাগুরা-ফরিদপুর সড়কের পারনান্দুয়ালী বাস টার্মিনাল সংলগ্ন ৩নং ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মুয়াজ্জিনের নাম সালাম মন্ডল। তিনি মাগুরা সদর উপজেলার লস্করপুর গ্রামের মৃত মোবারক হোসেনের ছেলে। স্থানীয় একটি মসজিদের মুয়াজ্জিন ছিলেন সালাম মন্ডল।

মাগুরার পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম বলেন, বুধবার ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ইউনিক পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস মাগুরা-ফরিদপুর সড়কের পারনান্দুয়ালী বাস টার্মিনাল সংলগ্ন ৩নং ব্রিজ এলাকায় মুয়াজ্জিন সালাম মন্ডলকে চাপা দেয়। এ সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে পড়ে যায় বাসটি। তখন বাসের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান সালাম মন্ডল। ঘাতক বাসটি আটক করতে পারলেও চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। বাসচালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম।

এ নিয়ে গত তিনদিনে মাগুরায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজছাত্রসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এসব দুর্ঘটনায় ১২ জন আহত হয়েছেন। প্রতিদিন সড়কে প্রাণহানির ঘটনায় শঙ্কিত এলাকাবাসী।

এদিকে, মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন প্রগতি সরণি এলাকায় সু-প্রভাত বাসের চাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী নিহত হন।

পরে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা আট দফা দাবি ঘোষণা করেন। বুধবার সকাল থেকেও রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্তে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন চালিয়ে যান। বিকেলে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামের সঙ্গে বৈঠক শেষে ২৮ মার্চ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত করেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

আরাফাত হোসেন/এএম/পিআর