আন্দোলনের রেশ কাটতেই দুর্ঘটনায় ঝরেছে ৮ প্রাণ

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪৫ পিএম, ২১ মার্চ ২০১৯

ঢাকার প্রগতি সরণি এলাকায় বাসচাপায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী নিহতের পর সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। পরে বুধবার তারা ২৮ মার্চ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত করেন। কিন্তু এ আন্দলোনের রেশ কাটতে না কাটতেই রাজধানীসহ ৮ জেলায় সড়ক ও রেলপথে দুর্ঘটনায় ৮ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে শুধু সড়কেই ঝরেছে শিশু, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ ৬ প্রাণ। এছাড়া দুই জেলায় ট্রেনের ধাক্কায় ও ছাদ থেকে পড়ে দুজন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

রাজধানীর মিরপুরে তেলবাহী লরির চাপায় আব্দুর রাজ্জাক (৫২) নামে এক মাদরাসা শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মিরপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মঞ্জুরুল ইসলাম জানান, ভোরে মিরপুরের কল্যাণপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় রাস্তা পারাপারের সময় দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি। স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা গেছে, একটি তেলের লরির ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় রাজ্জাকের।

নরসিংদীর বেলাবোর বারৈচা এলাকায় কাভার্ডভ্যানের চাপায় ৭ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বারৈচা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ভৈরব হাইওয়ে থানার ওসি তরিকুল ইসলাম বলেন, চালকসহ কাভার্ডভ্যানটিকে আটক করা হয়েছে। পরিবারের আবেদনের ভিত্তিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

নাটোরের ডাল সড়ক এলাকায় মাটিবাহী ট্রাক্টরের চাপায় রফিক নামে এক অটোরিকশা চালক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ইয়ামিন ও জাহাঙ্গীর নামে দুই যাত্রী । বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে নাটোর সদর উপজেলার ডাল সড়ক এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

খুলনার রূপসা উপজেলার আনন্দনগর গ্রামে ইটবোঝাই ট্রলির চাপায় প্রথম শ্রেণির ছাত্রী আখি মনির (৭) মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে স্কুল থেকে বের হয়ে পাশের দোকানে খাবার কিনতে যাওয়ার সময় ট্রলিচাপায় মারা যায় সে। এ ঘটনায় পুলিশ ট্রলিচালক মিলন শেখকে গ্রেফতার করেছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলায় ট্রাক্টর উল্টে কাদির মিয়া (৩৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলার বেড়তলা এলাকার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় কালা মিয়া (৩৫) ও ইমাম হোসেন (২৬) নামে আরও দুইজন আহত হয়েছেন। তাদেরকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে কাভার্ডভ্যানের চাপায় হৃদয় (১৭) নামে এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন আরও দুই পথচারি। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার সিরাজগঞ্জ-নলকা নির্মাণাধীন চারলেন মহাসড়কে কামারখন্দ উপজেলার ভদ্রঘাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কাভার্ডভ্যানটিতে আগুন ধরিয়ে সড়ক অবরোধ করেন বিক্ষুব্ধ জনতা।

নিহত হৃদয় বাজার ভদ্রঘাট গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে ও ধুকুরিয়া আবদুল হামিদ কারিগরি কলেজের এইসএসচি পরীক্ষার্থী।

এছাড়া জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলায় বৃহস্পতিবার ভোরে ট্রেনের ধাক্কায় অজ্ঞাত একজন ও গাজীপুরের কালীগঞ্জে ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে অজ্ঞাত (২৬) এক যুবক নিহত হয়েছেন। কালীগঞ্জ পৌরসভার মূলগাঁও মাদরাসা সংলগ্ন রেললাইনে এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার দুপুরে মরদেহ উদ্ধার করেছে নরসিংদী রেলওয়ে ফাঁড়ি পুলিশ।

এফএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :