নৌকার প্রচার সভায় গোবর নিক্ষেপ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর
প্রকাশিত: ০৫:৪৪ পিএম, ২১ মার্চ ২০১৯

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচার সভায় গোবর নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার সন্ধ্যায় জেলা শহরের সমসেরাবাদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় শহরের সমসেরাবাদ এলাকায় নৌকার প্রচারণা সভা চলাকালে নেতাকর্মীদের লক্ষ্য করে গোবর নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় কয়েকজন নেতার গায়ে গোবর লেগে তারা লাঞ্ছনার শিকার হন। এর মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদকও রয়েছেন। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবি জানাই।

তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে লক্ষ্মীপুরে বহিরাগত অস্ত্রধারীরা এলাকায় অবস্থান করাসহ নৌকার কর্মী সমর্থকদের হুমকি দেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু। তবে এসব ঘটনায় জড়িত কারও নাম বলেননি তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক আবদুল মতলব, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) বিজন বিহারী ঘোষ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বেলায়েত হোসেন বেলাল ও যুবলীগ নেতা শামছুল ইসলাম পাটোয়ারী প্রমুখ।

Lusmipur--(2)

এদিকে, নৌকার প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী (দোয়াত-কলমের প্রতীক) একেএম সালাহ উদ্দিন টিপুও নৌকার প্রচারণা সভায় গোবর নিক্ষেপের ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন।

বেলা ১টায় লক্ষ্মীপুর প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে টিপু বলেন, এই নিন্দনীয় কাজে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি। যারা এ ঘটনায় জড়িত তাদের গ্রেফতার করা হোক।

এছাড়া উভয় প্রার্থী পরস্পরের বিরুদ্ধে হুমকি দেয়ার অভিযোগ তুলে অপরাধীকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন। তবে তারা কেউ কোনো অপরাধীর নাম উল্লেখ করেননি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার আ স ম মাহতাব উদ্দিন বলেন, নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচার সভায় গোবর নিক্ষেপের ঘটনায় যারা জড়িত তাদের দ্রুততম সময়ের মধ্যে গ্রেফতার করা হবে। তবে এ বিষয়ে কোনো প্রার্থী লিখিত অভিযোগ দেননি। এরপরও বিষয়টি তদন্ত করে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এএম/এমকেএইচ