নির্বাচনে মারা গেলে ১০ লাখ, আহত হলে ১ লাখ টাকা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর
প্রকাশিত: ০৫:৪৭ পিএম, ২১ মার্চ ২০১৯

‘নির্বাচনে কোনো কর্মী মারা গেলে তার পরিবারকে ১০ লাখ দেয়া হবে। কেউ আহত হলে তাকে এক লাখ টাকা দেয়া হবে। তবে আমার নেতাকর্মীরা ভোটের মাঠে মার খেলেও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ও তার নেতাকর্মীদের সঙ্গে সংঘাতে না জড়ানোর নির্দেশ দেয়া আছে। আমি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চাই। ’

বৃহস্পতিবার দুপুরে লক্ষ্মীপুর প্রেস ক্লাবে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু (দোয়াত কলম) সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন। তিনি জেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান।

সংবাদ সম্মেলনে টিপু বলেন, সদরে নৌকার প্রার্থী আবুল কাশেমের জনপ্রিয়তা না থাকায় তিনি নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অপচেষ্টা করছেন। ভোটে জনগণের কাছে না গিয়ে কিছু সেলফিবাজ নেতা তাদের বাসায় বসে উল্টাপাল্টা বকছেন। অস্ত্র আর সন্ত্রাসের রাজনীতি নয়, জনগণ ও নেতাকর্মীরা ভালোবাসা চায়। সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের লক্ষ্যে প্রশাসন ও সাংবাদিকদের সহযোগিতা চান এই প্রার্থী।

প্রসঙ্গত, আগামী ২৪ মার্চ সদর উপজেলায় নির্বাচন হবে। এখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল কাশেম ছাড়াও দুইজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

কাজল কায়েস/আরএআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :