সংঘর্ষের পর মাহেন্দ্রকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায় দুর্জয় বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৩:২৫ পিএম, ২২ মার্চ ২০১৯

বরিশাল নগরীর গড়িয়ারপাড় সংলগ্ন তেতুলতলা এলাকায় শুক্রবার দুর্জয় পরিবহন নামের একটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে মাহেন্দ্রের (ডিজেলচালিত থ্রি-হুইলার) চালকসহ ছয়যাত্রীর প্রাণহানি হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও পাঁচ যাত্রী। আহতদের বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বরিশাল-বানারীপড়া সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

হতহতদের স্বজনরা জানান, ১১ জন যাত্রী নিয়ে মাহেন্দ্রটি (ডিজেলচালিত থ্রি-হুইলার) বরিশালের নথুল্লাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে বাবুগঞ্জ উপজেলার মাধবপাশা যাচ্ছিল। অপরদিকে বানারীপড়া থেকে যাত্রী নিয়ে বরিশালের দিকে আসছিল দুর্জয় পরিবহন নামে একটি বাস। বাসটি বেপরোয়া গতিতে তেতুলতলা এলাকা অতিক্রমকালে বিপরীত দিক থেকে আসা মাহেন্দ্রের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে মাহেন্দ্রের সামনের ডানের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে মাহেন্দ্রের ছয় যাত্রী নিহত ও পাঁচজন গুরুতর আহত হন।

স্বজনদের অভিযোগ, দুর্জয় পরিবহন নামে ওই বাসের বেপরোয়া চলাচলের কারণেই প্রাণ গেছে ছয় যাত্রীর। মুখোমুখি সংঘর্ষের পরও বাসটি সেখানে না থামিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মাহেন্দ্রকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় নিহতের সংখ্যা বেড়েছে। ঘাতক বাস চালকের ফাঁসির দাবি জানানা তারা।

নগরীর বিমানবন্দর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রহমান মুকুল জানান, খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে দুইজন মারা যান। অপর চারজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান । আহত পাঁচজনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

তিনি আরও জানান, ঘটনার পরপরই বাসটি দ্রুত গতিতে চালিয়ে চলে যাওয়ায় চালক ও হেলপারকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তাদের আটকে অভিযান চালানো হচ্ছে।

সাইফ আমীন/আরএআর/এমকেএইচ