মাহেন্দ্রকে চাপা দেয়া সেই বাসের চালক গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ১২:০৪ এএম, ২৩ মার্চ ২০১৯

বরিশাল নগরীর গড়িয়ার পার সংলগ্ন তেঁতুলতলা এলাকায় মাহেন্দ্রকে চাপা দিয়ে ৭ জনকে মারার ঘটনায় দুর্জয় পরিবহনের ঘাতক বাসচালক মো. জলিল মোল্লাকে (৩২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বাবুগঞ্জ চাদপাশা ইউনিয়নের আরজিকালিকাপুর এলাকা থেকে জলিল মোল্লাকে গ্রেফতার করে নগরীর বিমানবন্দর থানা পুলিশ।

জলিল মোল্লা বাবুগঞ্জ চাদপাশা ইউনিয়নের আরজিকালিকাপুর এলাকার ওসমান আলী মোল্লার ছেলে।

আহতদের স্বজনরা অভিযোগ করেন, দুর্জয় পরিবহন নামে ওই বাসের বেপরোয়া গতির কারণেই প্রাণ গেছে ৭ যাত্রীর। মুখোমুখি সংঘর্ষের পরও বাসটি সেখানে না থামিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মাহেন্দ্রকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় মৃতের সংখ্যা বেড়েছে। স্বজনরা ঘাতক বাসের চালকের ফাঁসির দাবি জানান।

নগরীর বিমানবন্দর থানা পুলিশের ওসি আব্দুর রহমান মুকুল জানান, দুর্ঘটনার পর বাসটি দ্রুতগতিতে চলে যাওয়ায় চালক ও হেলপারকে আটক করা যায়নি। এরপর তার (ওসি আব্দুর রহমান) নেতৃত্বে ঘাতক চালক ও হেলপারকে গ্রেফতারে অভিযানে নামে পুলিশের একাধিক দল। ঘাতক জলিল মোল্লাকে গ্রেফতারে নগরীসহ আশপাশের এলাকায় তল্লাশি চালানো হয়। এরই মধ্যে গোপন সূত্র ও মোবাইল ফোন ট্রাকিং করে জানা যায় জলিল বাবুগঞ্জ চাদপাশা ইউনিয়নের আরজিকালিকাপুর এলাকায় আত্মগোপন করেছে। জলিলের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে সেখানে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে গ্রেফতারের পর থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পলাতক হেলপারের বিষয়ে জলিলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাকেও খুব দ্রুত গ্রেফতার করতে সক্ষম হবো আশা করি।

এর আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গড়িয়ার পার সংলগ্ন তেঁতুলতলা এলাকায় বরিশাল-বানারীপড়া সড়কে যাত্রীবাহী বাস দুর্জয় পরিবহনের চাপায় নারী ও শিশুসহ ৭ জন নিহত হন। আহত হন আরও ৪ জন।

সাইফ আমীন/জেএইচ