রিমান্ডের আগেই গৃহবধূকে গণধর্ষণের কথা স্বীকার করল তারা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি সাভার (ঢাকা)
প্রকাশিত: ০৮:০৫ পিএম, ৩০ এপ্রিল ২০১৯

সাভারের আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকায় স্বামীকে আটকে রেখে এক নারী পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত চারজন গণধর্ষণের কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতারের পর ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে তাদেরকে আদালতে পাঠায় পুলিশ। কিন্তু রিমান্ডে নেয়ার আগেই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়ে গৃহবধূকে গণধর্ষণের কথা স্বীকার করে গ্রেফতারকৃতরা। পরে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়।

গ্রেফতাররা হলো- আশুলিয়ার কাঠগড়া (উত্তরপাড়া) এলাকার সোহরাব শিকদারের ছেলে নূর মোহাম্মদ পলাশ (২১), একই এলাকার সাহাবুদ্দীনের ছেলে মো. সুজন শিকদার (২০), হাজী আব্দুস সাত্তারের ছেলে মো. ফেরদৌস (২৫) ও ধামরাইয়ের জাঙ্গালিয়া গ্রামের মৃত মো. আলীর ছেলে কবির হোসেন (৩০)। এ ঘটনায় অভিযুক্ত আব্দুর রাজ্জাক (৩০) নামে আরও একজন এখনো পলাতক রয়েছে।

এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ আশুলিয়া থানায় পাঁচজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন। আশুলিয়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক কামরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আদালতে গ্রেফতারকৃতরা তাদের দোষ স্বীকার করে গৃহবধূকে গণধর্ষণের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পলাতক একজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছে পুলিশ।

এদিকে, গণধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার রাতে স্বামীকে নিয়ে নতুন বাসা খুঁজতে গেলে স্থানীয় বখাটেরা তাদের গতিরোধ করে। পরে স্বামীকে আটকে গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে তারা। ওই গৃহবধূ পরবর্তীতে স্থানীয়দের সহায়তায় আশুলিয়া থানায় এসে এ ঘটনায় মামলা করেন।

এএম/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :