স্বপ্ন পূরণে কী যেন বাধা শ্রাবণীর!

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ১০:১৪ পিএম, ২০ মে ২০১৯

 

এসএসসি পরীক্ষায় এবার অভাবনীয় সাফল্যের তালিকায় যারা তাদের মধ্যে অন্যতম সেনহাটী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শ্রাবণী খাতুন। আর্থিক সংকটে এখন তার লেখাপড়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম।

অদম্য ইচ্ছাশক্তি, অসাধারণ মেধা নিয়ে সাফল্যের পথে সে ছিল দৃঢ়চেতা। তাই পাখি ডাকা ভোরেই জেগে লেখাপড়ায় মন দিত এবং নিয়মিত বিদ্যালয়ে উপস্থিত হত। স্কুল কার্যদিবসের সেরা উপস্থিতির পুরস্কারও যেত তার ঘরে। বিদ্যালয়ের দুটি শিফটের মধ্যে মেধা তালিকায় শীর্ষস্থান অধিকার করেছে প্রতিবছর বলে জানান শ্রেণি শিক্ষকরা।

আরও পড়ুন>রিকশার চাকায় কলেজছাত্রের ভাগ্য ফেরানোর চেষ্টা

আর্থিক দৈন্যতাকে পাশ কাটিয়ে নিজের ইচ্ছাশক্তি ও অধ্যবসায় কাজে লাগিয়ে ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় সেনহাটী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে সে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে।

পাটকলের সামান্য দিনমজুর বাবা আলী কদর খানের আর্থিক দৈন্যতা এখন মেধাবী এ শিক্ষার্থীর লেখাপড়া চরম বাধা হয়েছে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন, ‘সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃজ্ঞতা প্রকাশ করছি যে আমার ঘরে এমন একজন মেধাবী ও পরিশ্রমী মেয়ে দিয়েছেন তাকে।’ কিন্তু তার আর্থিক হাতটি খাটো করে দেয়ায় তিনি এখন অসহায় হয়ে পড়েছেন। তিন সন্তান, স্বামী-স্ত্রী ও বৃদ্ধ বাবা-মা নিয়ে তার সংসার। দিন মজুরি করে যা আয় হয় সে অর্থ দিয়ে দু’বেলা দু’মুঠো খাবার যোগাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাকে।

তিনি বলেন, ‘অভাবের কারণে কখনো মেয়েকে স্কুলে টিফিন দিতে পারিনি। মেয়েটা আমার দুপুরে কী খেতে তাও জানি না। মেয়ের এই সাফল্যে সত্যিই আমি অনেক খুশি।’ হৃদয়বিদারক কণ্ঠে কথাগুলো বলছিলেন বাবা।

এখন মেয়েকে লেখাপড়া করানোর মতো আর্থিক সঙ্গতি হারিয়ে চরম অসহায় হয়ে পড়েছেন বলে জানান তিনি। ২০১৫ সালে আর্থিক সংকটের কারণে মেধাবী শ্রাবণীর লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যায়। স্থানীয় কয়েকজন শিক্ষকের সহায়তায় ও আন্তরিকতায় লেখাপড়া চালিয়ে যায়। যে কারণে সে ২০১৬ সালের জেএসসি পরীক্ষায় এ প্লাস পেয়েছিল বলে জানান, শ্রাবণীর মা আদরী বেগম।

মা বলেন, ‘মেয়েটার লেখাপড়া চালিয়ে যেতে সহযোগিতার জন্য সেলাই মেশিনে কাজ করেছি সংসারের কাজের ফাঁকে। এখন একদিকে বয়স হয়েছে অন্যদিকে কাজও পাওয়া যাচ্ছে না। আর্থিক সংকট আরও চেপে বসেছে।’ দিনমজুর স্বামীর আয়ে নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা।

শ্রাবণী বলেন, ‘শিক্ষা ক্যাডার হওয়ার স্বপ্ন রয়েছে। স্বপ্ন পূরণে কী যেন বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।’ মহান সৃষ্টিকর্তা এ সংকট মোকাবেলার ক্ষমতা দিলে সব প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে সেরাদের তালিকায় থাকবে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বলেন শ্রাবণী।

আলমগীর হান্নান/এমআরএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :