পুলিশ কর্মকর্তাকে পেটাল বেপরোয়া দালালচক্র

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ১০:৩৬ পিএম, ২১ মে ২০১৯

জনশক্তি ও কর্মসংস্থান অফিসের দালালদের হাতে সাধারণ মানুষের হয়রানি ও লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনা অহরহ। এবার এই দালালচক্রের হাতে লাঞ্ছিত হলেন পুলিশের একজন কর্মকর্তা। সিলেট মহানগর পুলিশের এটিএসআই কুতুব উদ্দিনকে ঝাপটে ধরে কিল-ঘুষি মেরে আহত করেছে এক দালালচক্র। এ ঘটনায় পুলিশ প্রশাসনে তোলপাড় হচ্ছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার বিকেলে রিপন আহমদ নামের এক দালালকে আটক করেছে পুলিশ। সে নগরের শাহজালাল উপশহরের তেররতন এলাকার মালেকের কলোনির নিশিকান্ত দাসের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা কুতুব উদ্দিন বাদী হয়ে শাহপরান থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে নিজের কর্মস্থলে যাওয়ার উদ্দেশে রওনা হন মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের এটিএসআই কুতুব উদ্দিন। নগরের উপশহরে জনশক্তি ও কর্মসংস্থান অফিসের সামনে গেলে কয়েকজন দালাল তার গতিরোধ করে। আচমকা এমন পরিস্থিতির জন্য মোটেও প্রস্তুত ছিলেন না কুতুব উদ্দিন। তিনি কারণ জানতে চাইলে শুরু হয় দলবদ্ধ আক্রমণ। কিল-ঘুষির সঙ্গে টানা-হেঁচড়া!

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, হামলাকারী দালালদের মধ্যে ছিলেন মদিনা মার্কেটের মিলন মিয়া, উপশহর তেররতন এলাকার মালেকের কলোনির নিশিকান্ত দাসের ছেলে ছিনতাইকারী মো. রিপন আহমদ ও উপশহর এলাকার বিসমিল্লাহ স্টোরের ব্যবসায়ী ও দালাল রাহাত আহমেদ। এর মধ্যে রিপন মিয়া ছিনতাই মামলায় দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি।

মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের এডিসি নিকোলিন চাকমা জানান, দালালদের হাতে শারীরিক লাঞ্ছনার শিকার ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা কুতুব উদ্দিন শাহপরাণ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তারাই প্রয়োজনীয় আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

এ ব্যাপারে শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় এক দালালকে আটক করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারে পুলিশ কাজ করছে।

ছামির মাহমুদ/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :