প্রতিবাদ করায় গৃহবধূকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করল ৭ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৮:৩৬ পিএম, ০৮ জুন ২০১৯

বরিশালের হিজলা উপজেলার গৌরবদী ইউনিয়নের একতা বাজার এলাকায় মাছের ঘেরে ঘুরতে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ (২৫)। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার সকালে ধর্ষণের ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে হিজলা থানায় মামলা করেছেন। মামলায় গ্রেফতারকৃত দুইজন ছাড়াও অজ্ঞাত আরও ৩-৪ জনকে আসামি করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত দুইজনকে আদালতে সোপর্দ করলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠান। অন্যদিকে গৃহবধূকে সকালে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর বাড়ি মেহেন্দিগঞ্জের ধুলিয়া মধ্যচর গ্রামে।

গ্রেফতারকৃত জাকির হোসেন আমতলী উপজেলার মৌপাড়া এলাকার ছোটবগি গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে ও মামুন জমাদ্দার হিজলা উপজেলা গৌরবদী এলাকার নাসির জমাদ্দারের ছেলে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গৃহবধূ তার স্বামীর সঙ্গে ঢাকায় বসবাস করেন। ঈদের আগে গৃহবধূ তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। জাকির হোসেন পেশায় অটোরিকশাচালক। তার সঙ্গে আগেই ফোনে পরিচয় হয় ওই গৃহবধূর। শুক্রবার বিকেলে জাকির হোসেনের সঙ্গে ওই গৃহবধূ হিজলা উপজেলা গৌরবদী ইউনিয়নের একতা বাজার এলাকায় মাছের ঘেরে ঘুরতে আসেন। এ সময় স্থানীয় একদল বখাটে তাদের উত্ত্যক্ত করে। গৃহবধূ প্রতিবাদ করলে তাকে টেনেহিঁচড়ে পাশের একটি বাগানে নিয়ে গিয়ে ছয় থেকে সাতজন মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

স্থানীয়দের মাধ্যমে ঘটনাটি জানতে পেরে হিজলা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে শুক্রবার রাতে গৃহবধূকে উদ্ধার করে। এ সময় ঘটনাস্থল থকে জাকির হোসেন ও মামুন জমাদ্দারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

হিজলা থানা পুলিশের ওসি এসএম মাকসুদুর রহমান বলেন, গণধর্ষণের ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃত দুইজন ছাড়াও অজ্ঞাত আরও ৩-৪ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন। গ্রেফতারকৃত দুইজনকে শনিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।

সাইফ আমীন/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :