ডেঙ্গু কেড়ে নিল জীবন নাহারের জীবন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৭:০৫ পিএম, ২৫ আগস্ট ২০১৯

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার এক স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। রোববার দুপুরে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

নিহত শিক্ষিকার নাম জীবন নাহার রত্না (৪৫)। তিনি সাঁথিয়া পৌরসভার নওয়ানী গ্রামের বাসিন্দা এবং পৌর সদরের ২নং মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত ছিলেন। তার স্বামী রাকিবুল ইসলাম সাঁথিয়া পৌরসভার কাউন্সিলর।

সাঁথিয়া ২নং মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও সাঁথিয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিহতের পরিবারের স্বজনদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, জীবন নাহার রত্না ঈদের ছুটিতে ঢাকায় তার স্বজনদের বাসায় বেড়াতে যান। বাড়ি ফেরার কয়েক দিন পর তার জ্বর হয়। প্রথমে তিনি জ্বরের সাধারণ চিকিৎসা করান। গত ২১ আগস্ট স্কুলে ক্লাস করানোর সময় অসুস্থতা হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তার ডেঙ্গু জ্বর ধরা পড়ে। এরপর তাকে ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করে পরিবারের লোকজন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার দুপুর দেড়টার দিকে তিনি মারা যান।

সাঁথিয়া পৌরসভার মেয়র মিরাজুল ইসলাম প্রামাণিক জানান, ওই শিক্ষিকা তারই পৌরসভার এক কাউন্সিলরের স্ত্রী। তিনি ঢাকায় বেড়াতে গিয়ে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন। সাঁথিয়া পৌর সদরে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়নি বলেও জানান তিনি।

এদিকে পাবনায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালসহ জেলার অন্য তিনটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নতুন করে ১৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন। সরকারি হিসাবে এ পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগে জেলায় দুজনের মৃত্যুসহ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪৩৫। কিন্তু বেসরকারি হিসাবে আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ শতাধিক। পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসাসেবা দিতে গিয়ে চিকিৎসক-নার্সদের হিমশিম খেতে হচ্ছে।

পাবনার সিভিল সার্জন ডা. মেহেদী ইকবাল জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনায় নতুন করে ১৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ১১ জন ও বেড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তিনজন।

একে জামান/এমবিআর/পিআর