দফতরিকে দিয়ে ছাত্রীদের চুল কেটে দেয়া সেই প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি শরীয়তপুর
প্রকাশিত: ০৬:৩১ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে দফতরিকে দিয়ে ছাত্রীদের চুল কেটে দেয়ার দায়ে ২৯ নং ডিএমখালী বোর্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাবেরী গোপকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় উপ-পরিচালকের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

শরীয়তপুর জেলা প্রথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গত বৃহস্পতিবার ভেদরগঞ্জ উপজেলার ২৯ নং ডিএমখালী বোর্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাবেরী গোপ দফতরিকে দিয়ে ৫ম শ্রেণির ১১ ছাত্রীর চুল কেটে দেন। এতে ক্ষুব্ধ হন শিক্ষার্থী ও তাদের স্বজনরা।

বিষয়টি নিয়ে জাগো নিউজসহ বিভিন্ন প্রিন্ট, অনলাইন ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় সংবাদ প্রচারিত হয়। এরপর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবুল কালাম আজাদ উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মশিউল আজম হিরক ও মো. গোলাম মোস্তফা মিয়াকে ঘটনা তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশে দেন।

সোমবার সরেজমিনে তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পাওয়ার পর মঙ্গলবার জেলা প্রথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে তারা প্রতিবেদন দাখিল করেন। ওই দিনই জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করে ঢাকা বিভাগীয় উপ-পরিচালকের কাছে প্রতিবেদন দাখিল করেন। প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার ঢাকা বিভাগীয় উপপরিচালক অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জনান, আজ (বুধবার) দুপুরে ওই অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্তের আদেশ সংবলিত ঢাকা বিভাগীয় উপপরিচালকের পত্র পেয়েছি। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মো. ছগির হোসেন/এমবিআর/এমএস