সাপে কাটা রোগীকে ইনজেকশন, সঙ্গে সঙ্গে মৃত্যু

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি মির্জাপুর (টাঙ্গাইল)
প্রকাশিত: ০৯:২৩ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায় ভুল চিকিৎসায় আবু সাঈদ সিদ্দিকী নামে সাপে কাটা এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের কুড়াতলী উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত ওহাব আলী সিদ্দিকীর ছেলে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে আবু সাঈদ সিদ্দিকী ঘুম থেকে উঠে বিছানায় পা নামিয়ে বসেছিলেন। এ সময় খাটের নিচে থাকা বিষাক্ত সাপ তার পায়ে কামড় দেয়। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে বাঁধ দিয়ে বাঁশতৈল বাজারের বাঁশতৈল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে গেলে পল্লী চিকিৎসক আতোয়ার রহমান ইনজেকশন দেন। ইনজেকশন দেয়ার পর রোগীর শরীরের বাঁধ খুলে দেন চিকিৎসক আতোয়ার। সেখানে সঙ্গে সঙ্গে তার মৃত্যু হয়।

আবু সাঈদের চাচাতো ভাই জুয়েল সিদ্দিকী বলেন, সাপে কাটা রোগীর শরীরে বাঁধ দিয়ে রাখলে দু’তিনদিন বাঁচিয়ে রাখা যায়। কিন্তু চিকিৎসক আতোয়ার ভুল চিকিৎসা দিয়েছেন। তিনি ভুয়া চিকিৎসক। তার ভুল চিকিৎসার কারণে আমার চাচাতো ভাই সাঈদের মৃত্যু হয়েছে।

বাঁশতৈল ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চিকিৎসক আতোয়ার রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করে চিকিৎসক কিনা জানতে চাইলে নিজেকে পল্লী চিকিৎসক দাবি করেন।

সাপে কাটা রোগীর চিকিৎসা দেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ওষুধ কোম্পানির প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রতিনিধি কফিল উদ্দিনের পরামর্শে সাঈদের শরীরে ইনজেকশন দিয়েছিলাম। কিছুক্ষণ পর তার মৃত্যু হয়।

এস এম এরশাদ/এএম/জেআইএম