বঙ্গবন্ধু হত্যায় আমার স্বামী জড়িত নয় : রিটা রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০৫:১৫ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বঙ্গবন্ধু হত্যা ও জেলহত্যা মামলায় মেজর মোহাম্মদ খায়রুজ্জামান জড়িত নয় বলে দাবি করেছেন তার স্ত্রী ও রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী রিটা রহমান।

‘বঙ্গবন্ধুর খুনির স্ত্রীকে বিএনপির মনোনয়ন’ সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন বিষয় ছড়িয়ে পড়লে বুধবার দুপুরে রংপুর মহানগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে ডেকে এসব কথা বলেন রিটা রহমান।

তিনি বলেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে একটি মহল আমার স্বামী খায়রুজ্জামানকে বঙ্গবন্ধু ও জেলহত্যা মামলার আসামি বলে প্রচার করছে। এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। আমাকে নির্বাচনে ঘায়েল করতে একতরফাভাবে ভিত্তিহীন অপপ্রচার চালাচ্ছে তারা।

রিটা রহমান বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট আমার স্বামী ভারতে প্রশিক্ষণে ছিলেন। এ কারণে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার চার্জশিটে আমার স্বামীর নাম ছিল না। এই রেকর্ড বঙ্গবন্ধুর হত্যা মামলার ফাইল খুললেই পাওয়া যাবে।

বিএনপির এই প্রার্থী বলেন, মেজর খায়রুজ্জামান আসামি না হলেও ১৯৯৬ সালের ১৩ আগস্ট তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাকে জেলহত্যা মামলায় আসামি করা হয়। ২০০২ সালে খায়রুজ্জামানসহ পাঁচজনকে বেকসুর খালাস দেন আদালত। তারপরও আমার স্বামী ও পরিবারকে ঘিরে মিথ্যাচার করা হচ্ছে। এসব মিথ্যাচার বন্ধ করা না হলে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করব।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি সামসুজ্জামান সামু, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক লিটন পারভেজ, জেলা যুবদলের সাধারণ শামসুল হক ঝন্টু, যুগ্ম সম্পাদক শাহ জিল্লুর রহমান, মহানগর যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক জহির আলম নয়ন ও রংপুর সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রবিউল ইসলাম প্রমুখ।

জিতু কবীর/এএম/এমএস