৫ দিন সংসার করে পালালেন প্রবাসী, অনশনে স্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৫:৪৬ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

প্রেমিকাকে বিয়ের পর পাঁচদিন সংসার করে পালিয়ে গেলেন প্রবাসী স্বামী। এ অবস্থায় স্বামীর বাড়িতে গিয়ে বিয়ে ও স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে অনশনে বসেছেন এক নারী।

ওই নারীর বাড়ি ঢাকার যাত্রাবাড়ী এলাকায়। টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় স্বামীর বাড়িতে বর্তমানে অনশনে আছেন তিনি। বুধবার বিকেল থেকে বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের কালমেঘা চৌরাস্তা গ্রামের শামসুল হক মধু মিয়ার ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে অনশন অব্যাহত রেখেছেন ওই নারী। তবে স্ত্রী বাড়িতে আসার সংবাদ পেয়ে আনোয়ার হোসেন পালিয়ে গেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মালয়েশিয়া প্রবাসী আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে ঢাকার যাত্রাবাড়ী এলাকার ওই নারীর মোবাইলে পরিচয় হয়। পরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

অনশনরত ওই নারীর ভাষ্য, প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে এক বছর আগে কাবিন রেজিস্ট্রি করে বিয়ে করি আমরা। মুঠোফোনের মাধ্যমে বিয়ে হলেও ৩ সেপ্টেম্বর মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফিরে কাজি অফিসে গিয়ে কাবিনে স্বাক্ষর করে আনোয়ার হোসেন। পরে ঢাকার যাত্রাবাড়ীতে আমাদের বাসায় পাঁচদিন সংসার করে।

ওই নারী বলেন, বিয়ের ষষ্ঠ দিনে কাউকে কিছু না বলে উধাও হয়ে যায় আনোয়ার। এরপর থেকে আমার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় সে। এরপর আমি তার বাড়িতে এসে অবস্থান নিই। বাড়িতে আসার পর জানতে পারি আনোয়ারের আগের স্ত্রী রয়েছে। আমাকে দেখে আনোয়ারের স্ত্রী ও অন্যরা ব্যাপক মারপিট করেছে। আমার শরীরের বিভিন্ন অংশে মারপিটের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বহুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সেলিম বলেন, ওই বাড়িতে গিয়ে অনশনরত নারীর সঙ্গে কথা বলেছি। বিদেশ থেকে দেশে এসে ওই নারীকে বিয়ে করেছে আনোয়ার। ওই নারী বাড়িতে আসার খবর পেয়ে পালিয়ে গেছে আনোয়ার। তাকে না পাওয়ায় কোনো সিদ্ধান্ত দিতে পারছি না। স্ত্রীর স্বীকৃতি না পাওয়া পর্যন্ত ওই নারী অনশন করবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন।

আরিফ উর রহমান টগর/এএম/এমকেএইচ