মেয়েদের নামে জমি লিখে দেয়ায় ছোট ভাইয়ের হাতে খুন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি হবিগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:৪০ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
ছবি : নিহত এবদাল মিয়ার স্ত্রী হারুনা বেগম

ছেলে সন্তান না থাকায় দুই মেয়ের নামে সম্পত্তি লিখে দেন এবদাল মিয়া (৪৫)। কিন্তু বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি তার ছোট ভাই কামাল মিয়া। খায়েশ ছিল বড় ভাইয়ের মৃত্যুর পর ওই সম্পত্তির মালিক হবেন তিনি। তাই রাগে-ক্ষোভে বড় ভাইকে খুন করেছেন কামাল মিয়া।

রোববার দুপুরে হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার চৌমুহনী ইউনিয়নের জয়পুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত এবদাল মিয়া ওই গ্রামের হাজী ফজলুল হকের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, রোববার দুপুরে এবদাল মিয়া চৌমুহনী বাজার থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়িতে ফেরার সময় ছোট ভাই কামাল মিয়া ও তার লোকজন তাকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় এবদাল মিয়াকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফারহানা মাইমুন তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এবদাল মিয়ার স্ত্রী হারুনা বেগম হাসপাতালে কান্না জড়িত কণ্ঠে জানান, আমাদের দুই মেয়ে, কোনো ছেলে নেই। এক মেয়ে প্রতিবন্ধী। মেয়েদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আমার স্বামী মেয়েদের নামে সম্পত্তি লিখে দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে কামাল মিয়া তাকে খুন করেছে। সে আমাদের সম্পত্তি নিয়ে নিতে চেয়েছিল।

এবদাল মিয়ার অপর ভাই জামাল মিয়া জানান, জায়গা-জমি নিয়ে কিছুদিন আগেও সালিশ হয়েছে। সালিশে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আপন মিয়া উপস্থিত থেকে সমাধান করে দেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আপন মিয়া জানান, তাদের ভাইয়ে ভাইয়ে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। সীমানা ঠিক করে দিয়ে তাদের মিলিয়ে দিয়েছিলাম। এখন কী কারণে এ ঘটনা ঘটলো বলতে পারছি না।

মাধবপুর থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন : খুন সম্পর্কিত সকল খবর

সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন/এমবিআর/এমএস