এখন যারা অপকর্ম করছে তারা আমাদেরই লোক : ওবায়দুল কাদের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কক্সবাজার
প্রকাশিত: ০৮:৩১ এএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশে যারা এখন অপকর্ম করছে তারা আমাদের নিজেদেরই লোক। আমি এ কথা বলবো না যে, যারা অপকর্মে জড়িত তারা অমুক দল থেকে আসা লোক। কারণ তারা আমাদের দলের পরিচয়ে এখন অপকর্ম করছে। কাজেই আমরা আমাদের দলের লোক হিসেবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি।।

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের শহীদ এটিএম জাফর আলম সিএসপি সম্মেলন কক্ষে জেলার সরকারি অফিস প্রধান এবং স্থানীয় সুধীজনদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারি দলের ব্যানারে অপকর্মের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে সরকার দেশে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছে। এ সৎ সাহস প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া আর কেউ দেখাতে পারেননি। এ কারণে শেখ হাসিনার গ্রহণযোগ্যতা ও জনপ্রিয়তা গত এক সপ্তাহে অনেক গুণ বেড়েছে। এটা দেখে গাত্রদাহ শুরু হয়েছে বিএনপির। অথচ এরা গত ১০ বছরে ১০ মিনিটের জন্যও রাজপথে আন্দোলন করতে পারেনি। তাদের নেত্রীকে জেল থেকে বের করার দাবিতে দেড় বছরে দেড় মিনিটের জন্যও রাস্তায় দাঁড়ায়নি। রাজনীতি, নির্বাচন সবক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে তারা আবার সরকারের পদত্যাগ দাবি করে। ব্যর্থতার দায়ে বিএনপি নেতৃবৃন্দের টপ-টু-বটম পদত্যাগ করা উচিত বলে আমি মনে করি।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে সন্ত্রাসী, দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ ও লুটেরাদের দাপট আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে গিয়েছিল। হাওয়া ভবন ক্ষমতার বিকল্প কেন্দ্রস্থল হয়েছিল। এ কারণে বিএনপি সরকার বার বার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। তাদের মুখে দুর্নীতিবিরোধী কথা মানে ‘ভূতের মুখে রাম নাম’ শোনার সমান।

সেতুমন্ত্রী বলেন, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সরকারের অংশ। তাই সততার সঙ্গে আন্তরিক হয়ে দায়িত্ব পালন করতে হবে। এতে সবখানে সফলতা আসবে।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের সভাপতিত্ব সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া। এ সময় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ, কক্সবাজারের সংসদ সদস্য জাফর আলম, আশেক উল্লাহ রফিক ও সাইমুম সরওয়ার কমল, আরআরআরসি মাহবুব আলম তালুকদার, পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সায়ীদ আলমগীর/আরএআর/পিআর