প্রতীমা বিসর্জনের প্রস্তুতিকালে হত্যা করা হয় কলেজছাত্র শাওনকে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৩:৪৫ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯

ময়মনসিংহ নগরীর গোলপুকুর পাড় এলাকায় প্রতীমা বিসর্জনের প্রস্তুতিকালে ছুরিকাঘাতে শাওন ভট্টাচার্য (২০) নামে এক কলেজছাত্র নিহতের ঘটনায় প্রধান আসামিসহ ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মূল আসামি মাহফুজুল ইসলাম মাহিন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন।

অন্যদিকে, শাওন হত্যার বিচারের দাবিতে শহরের জিরো পয়েন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কলেজের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রতীমা বিসর্জনের প্রস্তুতিকালে নাচানাচি ও ধাক্কাধাক্কি নিয়ে আসামিদের সঙ্গে নিহত শাওনের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে গ্রেফতারকৃত মাহিন ছুরি দিয়ে শাওনকে আঘাত করে। হাসপাতালে নেয়ার পর সে মারা যায়। ঘটনার দুই ঘণ্টার মধ্যে মূল আসামি নগরীর আর কে মিশন রোডের সেম্মত আলীর ছেলে মাহিনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তার দেয়া তথ্য মতে নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে আকাশ চন্দ্র দে, সারোয়ার উদ্দিন হৃদয়, ফারদিন, সাজ্জাদ, মুন্না ও রাকিব নামে আরও ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা সুভাশীষ ভট্টাচার্য বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৮/১০ জনকে আসামি করে কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেন। নিহত শাওন ময়মনসিংহ কমার্স কলেজের এইচএসসি ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং নগরীর ব্রাহ্মপল্লী এলাকার সুভাষ ভট্টাচার্যের ছেলে।

এমএএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]