সবার শোক সংবাদ দেয়া আরাফাতের মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কক্সবাজার
প্রকাশিত: ০৯:১৭ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯

সাবলীল কণ্ঠে উপস্থাপনা ও মাইকিংয়ের কারণে যেকোনো আয়োজন এবং মৃত্যুর খবর প্রচারে ডাক পড়তো আরাফাত রহমানের (৩৮)। কিন্তু বৃহস্পতিবার সেই আরাফাতের মৃত্যুর খবর প্রচার হয়েছে অন্যদের মাইকিংয়ে। ক্যানসারের কাছে হার মেনে অসময়ে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে পরপারের বাসিন্দা হয়েছেন আরাফাত।

তিনি কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারার ৭নং ওয়ার্ডের পূর্ব মাইজপাড়া গ্রামের মৃত গোলাম রহমান পুতু ড্রাইভারের বড় ছেলে। দাম্পত্য জীবনে দুই সন্তানের জনক ছিলেন।

বৃহস্পতিবার ভোর ৪টায় নিজ বাড়িতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। একই দিন বিকেলে পূর্ব মাইজপাড়া তেঁতুল গাছতলা জামে মসজিদ মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়।

ডুলাহাজারার ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. ফরিদুল আলম বলেন, বছর খানেক আগে ক্যানসারে আক্রান্ত হন আরাফাত। তখন থেকে শহরের হাসপাতালসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় ছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার না ফেরার দেশে চলে গেলেন আরাফাত। অর্থাভাবে দেশের বাইরে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা করাতে ব্যর্থ হন তিনি। দুই সন্তানের জনক আরাফাতের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এলাকার সবার মৃত্যুর সংবাদের ঘোষণা দিতেন আরাফাত।

সায়ীদ আলমগীর/এএম/এমকেএইচ