অফিসে ঢুকে প্রকৌশলীকে হুমকি, রুমে তালা দিয়ে পুলিশকে খবর

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ০৯:৫১ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯

নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে রাস্তার কাজ করার জন্য উপজেলা প্রকৌশলীকে হুমকি দিতে যান তিনি। জামাতার পক্ষ নিয়ে এমন কাজ করতে গিয়ে কারাগারে গেলেন শ্বশুর মোল্লা আজিজুর রহমান গাউস।

প্রকৌশলী কৌশলে গাউসকে আটকে রেখে অফিসের বাইরে চলে আসেন। পরে তালা কেটে গাউসকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনার তেরখাদা উপজেলার প্রকৌশলী মো. শহিদুল ইসলামের দপ্তরে এ ঘটনা ঘটে।

প্রকৌশলীর দপ্তর সূত্র জানায়, সম্প্রতি ঠিকাদার এফ এম হাবিবুর রহমান উপজেলার পানতিতা এলাকায় একটি রাস্তা মেরামতের কাজ পান। সেই কাজে ব্যাপক অনিয়ম করেন হাবিবুর। উপজেলা প্রকৌশলী মো. শহিদুল ইসলাম সেই কাজে বাধা প্রদান করে নতুন করে কাজ শুরু করতে বলেন ঠিকাদারকে। এ নিয়ে প্রকৌশলীর সঙ্গে ঠিকাদারের কয়েক দফা তর্কবিতর্ক হয়।

khulna-lock-1

শেষ পর্যন্ত ঠিকাদার তার প্রভাবশালী শ্বশুর মোল্লা আজিজুর রহমান গাউসকে প্রকৌশলীর দপ্তরে পাঠিয়ে কাজ আগে যেমন করছিলেন তেমন করার জন্য হুমকি দেন। এ নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার কথা জানান। একপর্যায়ে প্রকৌশলীকে ধাক্কা দেন গাউস।

প্রকৌশলী তখন রুম থেকে বের হয়ে গাউসসহ আর একজনকে তালা মেরে সরে পড়েন। প্রায় দুই ঘণ্টা পর খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিষ্ণুপদ পাল ও থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. খালেকুজ্জামান ঘটনাস্থলে গিয়ে তালা কেটে গাউস ও তার সহযোগীকে বের করেন। পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

তেরখাদা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. খালেকুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, গাউস উপজেলা প্রকৌশলীকে লাঞ্ছিত করায় গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। গাউস ও তার সহযোগীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আলমগীর হান্নান/এএম/পিআর