ভিসি হওয়ার জন্য লেজুড়বৃত্তি রাজনীতি করছেন শিক্ষকরা : হানিফ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মৌলভীবাজার
প্রকাশিত: ০৭:০৪ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০১৯

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, ছাত্র রাজনীতি নয়, শিক্ষকদের পেশাজীবী রাজনীতি বন্ধ করুন। রাজনীতির কারণে ছাত্রদের কাছে সম্মানের জায়গা হারিয়ে ফেলেছেন শিক্ষকরা।

তিনি বলেন, ছাত্ররা এখন শিক্ষকদের মানে না। লেজুড়বৃত্তির রাজনীতির কারণে সম্মান হারিয়েছেন শিক্ষকরা, ছাত্রদের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছেন তারা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হওয়ার জন্য, প্রভোস্ট হওয়ার জন্য এমনকি বড় বড় পদ-পদবির জন্য লেজুড়বৃত্তির রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েছেন শিক্ষকরা।

রোববার বিকেলে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

হানিফ বলেন, ছাত্র রাজনীতি এই দেশে অতীতে ছিল, বর্তমানেও আছে। ভবিষ্যতে থাকবে কিনা সে সিদ্ধান্ত নেবে ছাত্ররা। তবে আমাদের ছাত্র রাজনীতির গৌরব উজ্জ্বল ভূমিকা আছে। অথচ ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করে শিক্ষকরা রাজনীতি করতে চান। ছাত্র রাজনীতির ভূমিকার কারণেই আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। ছাত্র রাজনীতি বন্ধ না করে শিক্ষকদের পেশাজীবী রাজনীতি বন্ধ করুন। তখন দেখবেন শিক্ষকদের নিয়ন্ত্রণে থাকবে ছাত্ররা। অন্যায়-অনিয়ম দূর করার জন্য আপনারা শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে পারবেন। কিন্তু ছাত্র রাজনীতি বন্ধ করে শিক্ষকরা রাজনীতি করলে অস্থিরতা বাড়বে।

শ্রীমঙ্গল পুরাতন বাজারে অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমপি নেছার আহমদ।

উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আজকির মিয়ার সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য কমলগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুর রহমান প্রমুখ।

রিপন দে/এএম/এমএস