১২ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা করলেন সেই পিআইও

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০৩:০০ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৯
পিআইও নুরুন্নবী সরকার

ঘুষ, দুর্নীতি ও লুটপাটের সংবাদ প্রকাশ করায় ১২ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মানহানির অভিযোগে মামলা করেছেন গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নুরুন্নবী সরকার।

গতকাল মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে রংপুর মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এক আইনজীবীর মাধ্যমে তিনি মামলাটি করেন। পরে আদালতের বিচারক রংপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলায় যমুনা টেলিভিশনের সিএনই, মফস্বল ইনচার্জ, কালের কণ্ঠের সম্পাদক, বার্তা সম্পাদক ও মফস্বল সম্পাদককে আসামি করা হয়ছে। এছাড়াও যমুনা টিভির গাইবান্ধা প্রতিনিধি জিল্লুর রহমান পলাশ, কালের কণ্ঠের সুন্দরগঞ্জ প্রতিনিধি শেখ মামুন-উর রশিদ, ইত্তেফাকের সুন্দরগঞ্জ প্রতিনিধি রশিদুল আলম চাঁদ, দৈনিক জনসংকেতের প্রতিনিধি জাহিদ কারী, জয়যাত্রা টিভির প্রতিনিধি শফিকুল ইসলাম অবুজ, দৈনিক ভোরের দর্পণের প্রতিনিধি একেএম ছামছুল হক ও মানবাধিকারকর্মী মাহাবুবুর রহমান খাঁনকে আসামি করা হয়ছে।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, পিআইও নুরুন্নবীর বিরুদ্ধে সম্প্রতি যমুনা টেলিভিশন, কালের কণ্ঠসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে অনিয়ম, দুর্নীতি ও লুটপাটের একাধিক প্রতিবেদন/সংবাদ প্রচার করা হয়েছে। এসব সংবাদ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে সরবরাহকৃত তথ্যে এসব সংবাদ প্রচার-প্রকাশ করেন। এমন সংবাদ টিভি, বিভিন্ন পত্রিকা, অনলাইন ও ফেসবুকে প্রচারে তার মারাত্মক সম্মানহানি হয়েছে। এতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। তবে ক্ষতিপূরণ বাবদ কোনো টাকা উল্লেখ বা দাবি করেনিন বাদী।

এ বিষয়ে পিবিআই রংপুর জেলার প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আকতার হোসেন বলেন, আদালতের নির্দেশ সংক্রান্ত কোনো কাগজ এখনও হাতে পাইনি। পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

এদিকে দেশজুড়ে ঘুষ-দুর্নীতি বিরোধী চলমান অভিযানের সময় পিআইও নুরুন্নবীর বিরুদ্ধে একের পর এক দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ হয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে। কিন্তু সংবাদ প্রকাশের জেরে এবং নিজেকে সামলাতে মানহানির অভিযোগে ১২ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তিনি। হয়রানিমূলক মামলায় ফাঁসানোর ঘটনায় ফুঁসে উঠেছেন জেলা-উপজেলার সাংবাদিক সমাজ। ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা দ্রুত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন তারা।

অপরদিকে ঘুষ, দুর্নীতি-লুটপাট, একাধিক মামলা ও দাপট-দাম্ভিকতায় আলোচিত গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নুরুন্নবী সরকারকে মঙ্গলবার স্ট্যান্ড রিলিজ (তাৎক্ষণিক প্রত্যাহার) করা হয়েছে। জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আলহাজ ইদ্রিস আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জিতু কবীর/আরএআর/জেআইএম