গাবতলীতে কৃষকের ৫০ শতক জমির পাকা ধানে আগুন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৫:০৫ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৯

বগুড়ার গাবতলীতে বালু ব্যবসার আধিপত্য নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’দফা সংঘর্ষের পর প্রতিপক্ষরা কৃষকের জমির পাকাধানে আগুন দিয়ে পুড়ে দিয়েছে। এ ঘটনায় দুই পাড়ার মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে। শুক্রবার সকালে নাড়ুয়ামালা ইউনিয়নের মধ্যকাতুলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, উপজেলার মধ্যকাতুলী নয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল মোমিনের সঙ্গে একই ইউনিয়নের মধ্যকাতুলী দক্ষিণপাড়া গ্রামের নুরনবীর বালু ব্যবসা ও এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে উভয়ের মধ্য বিরোধ চলছিল। গত বুধবার আব্দুল মোমিন তার এলাকার একটি নির্মাণাধীন বাড়িতে বালু সরবরাহ করে। এতে অপর বালু ব্যবসায়ী নুরনবী ও তার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে সেই বালু জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে সংঘর্ষ হয়। এরপর থেকেই উভয়ের মধ্য বালু ব্যবসা নিয়ে উত্তেজনা চলছিল।

গতকাল বৃহস্পতিবার মধ্যকাতুলী মাঠে কৃষক ও বালু ব্যবসায়ী আব্দুল মোমিন তার ৫০ শতাংশ জমিতে পাকা ধান কাটার সময় প্রতিপক্ষরা জমিতে গিয়ে লাঠিসোটা ও অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। তারা ধান কাটার শ্রমিকদের মারপিট করে তাড়িয়ে দেয়। এরপর শুক্রবার সকালে আব্দুল মোমিনের জমিতে কেটে রাখা পাকা ধানে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে সব ধান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক আব্দুল মোমিন জানান, তার প্রায় এক বিঘা জমির কাটা ধান গাছসহ জমিতে স্তুপ করে রাখা ছিল। শুক্রবার মেশিন দিয়ে গাছ থেকে ধানগুলো ছাড়ানোর কথা ছিল। তার আগেই পুড়িয়ে দিলো।

ইউপি সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, আব্দুল মোমিন ও নুরনবীর মধ্য বালু ব্যবসা নিয়ে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরেই তার পাকা ধানে কে বা কারা আগুন দেয়।

এ ঘটনায় গাবতলী মডেল থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ সেলিম হোসেনের জানান, এ ব্যাপারে থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

লিমন বাসার/এমএএস/এমকেএইচ