‘বুলবুল’ এর প্রভাবে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি ঝালকাঠিতে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝালকাঠি
প্রকাশিত: ০৫:৪৯ পিএম, ০৮ নভেম্বর ২০১৯

বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আরও শক্তিশালী হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ১০ কিলোমিটার বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ইতোমধ্যে চার নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত জারি করা হয়েছে। যা সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে আরও বাড়তে পারে।

এদিকে ইতোমধ্যে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাব পড়েছে দক্ষিণাঞ্চলের জেলা ঝালকাঠিতে। শুক্রবার দুপুর ১২টার পর থেকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে। শুরু হয়েছে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। জেলার সুগন্ধা, বিশখালী আর হলতা নদীর পানিও থমথমে অবস্থায় আছে।

এ অবস্থায় জেলার বঙ্গোপসাগরের নিকটবর্তী উপজেলা কাঁঠালিয়ার জেলেদের নিরাপদ স্থানে থাকার নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসান।

সেই সঙ্গে সুগন্ধা নদীর কলেজ খেয়াঘাট ও পৌরসভা খেয়াঘাটে সব ধরনের ইঞ্জিল চালিত ট্রলারকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। প্রস্তুত রাখা হয়েছে জেলার সব সাইক্লোন সেল্টার।

বিকেলে ঝালকাঠি জেলা প্রাশসকের সভাকক্ষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। নেয়া হয়েছে সবরকম প্রস্তুতি। জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলীর সভাপতিত্বে সভায় জেলার সব সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী জানান, জেলার সব সাইক্লোন শেল্টার, বিদ্যালয় এবং পাকা ভবন দুর্যোগ প্রস্তুতিতে রয়েছে। জানমালের যাতে কোনো প্রকার ক্ষতি না হয় সে জন্য দুর্যোগ মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যবিভাগ, ফায়ার সার্ভিস, রেডক্রিসেন্ট, পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে সতর্ক থাকার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

আতিক রহমান/এমএমজেড/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]