বাসচাপায় তছনছ একটি পরিবার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর
প্রকাশিত: ০৮:১৪ পিএম, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজি চালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে বাবা-মেয়েসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন। বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে উপজেলার উজুলী দীঘিরপাড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন উপজেলার টোক ইউনিয়নের আড়ালিয়া গ্রামের ফরিদ মিয়ার ছেলে সোহেল (৫০), তার মেজ মেয়ে রুমা (৫) ও কাপাসিয়া উপজেলা কৃষি উপ-সহকারী কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম (৩০)। মাজাহারুল একই উপজেলার তরগাঁও গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মোসলেহউদ্দিনের ছেলে।

আহতরা হলেন সোহেলের স্ত্রী নাজমা (৪৫) ও বড় মেয়ে সুমা (২০)। তাদের গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকেই গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

ঘটনাস্থল থেকে নিহত সোহেলের সাত মাস বয়সী শিশুকন্যা রীমাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করেছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে কাপাসিয়ার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে সোহেল তার তিন মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে টোক বাজার থেকে সিএনজি অটোরিকশাযোগে কাপাসিয়া সদরের দিকে যাচ্ছিলেন। অটোরিকশাটি সালনা-কাপাসিয়া-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের উজুলী দীঘিরপাড় এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে কিশোরগঞ্জগামী জলসিঁড়ি পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সিএনজিটি দুমড়ে মুচড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হয়। আহত হন আরও দুইজন। হতাহতরা সবাই সিএনজির যাত্রী।

ওসি আরও জানান, স্থানীয়রা ঘটনাস্থল থেকে নিহত সোহেলের সাত মাস বয়সী শিশুকন্যা রীমাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে। পরে তাকে তার ফুফুর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় ঘাতক বাসটিকে আটক করা হয়েছে।

মো. আমিনুল ইসলাম/এমবিআর/পিআর