অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করায় ১৪২ জন আটক

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৪৬ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৯

গুজব ছড়িয়ে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে সারাদেশে এ পর্যন্ত ১৪২ জনকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দুপুর থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত তাদের আটক করে পুলিশ। একই সঙ্গে শতাধিক ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়েছে।

এর মধ্যে গাইবান্ধায় ২৪ জনকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাঘাটা ও গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা থেকে তাদের আটক করা হয়। পাশাপাশি অনেক ব্যবসায়ীকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়েছে।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানান, লবণের বাজার নিয়ন্ত্রণে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া বাজারে অভিযান চালিয়ে পাঁচজন ব্যবসায়ী ও দুই ক্রেতাকে আটক করা হয়। গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কামারদহ, বালুয়া ও বাগদা বাজার থেকে ১৭ জনকে আটক করে পুলিশ। পুলিশের ভয়ে লবণের বাজার স্বাভাবিক হয়ে গেছে।

সাঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর ও গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, গুজব ছড়িয়ে অধিক দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে মুন্সিগঞ্জ বাজার থেকে ১৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এর মধ্যে ১৩ জন ব্যবসায়ী ও একজন ক্রেতা রয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) বিকেল ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বাজারে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। অভিযানে ১৭ বস্তা লবণ জব্দ করা হয়েছে। প্রতি বস্তায় রয়েছে ২৫ প্যাকেট লবণ।

পাশাপাশি অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করায় বিকেলে সদর উপজেলার মুক্তারপুর এলাকায় অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় দুই দোকানিকে ১৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হ্যাপি দাস।

সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান বলেন, অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করার ১৩ জন বিক্রেতা ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে একজন ক্রেতাকে আটক করা হয়েছে।

jagonews24

জাগো নিউজের খুলনার নিজস্ব প্রতিবেদক জানিয়েছেন, অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করায় খুলনার বিভিন্ন বাজারে অভিযান চালিয়ে এ পর্যন্ত ১৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, সাতক্ষীরায় এখন পর্যন্ত ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। লবণের মূল্য বৃদ্ধির গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তাদের আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান।

জাগো নিউজের বরিশালের নিজস্ব প্রতিবেদক জানিয়েছেন, নির্ধারিত দামের চেয়ে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করায় বরিশালের গৌরনদী উপজেলা থেকে দুই ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার মাহিলাড়া বাজার থেকে তাদের আটক করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মাহবুবুর রহমান।

পটুয়াখালী প্রতিনিধি জানান, গুজব ছড়িয়ে পটুয়াখালীতে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করায় তিন দোকানদারকে আটক করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে দ্বিগুণ দামে লবণ বিক্রি করায় দুই ব্যবসায়ীকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেডকোয়ার্টার) শেখ বিল্লাল হোসেন।

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, শহরের নিতাইগঞ্জে দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে লবণের দাম বেড়ে যাবে প্রচারণা চালান আবদুল করিম। একই সঙ্গে ‘লবণের দাম বাড়বে’ ফেসবুকে এমন স্ট্যাটাস দিয়ে গুজব ছড়িয়ে দেন তিনি। এজন্য তাকে আটক করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান।

ভোলা প্রতিনিধি জানান, ভোলা সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাওছার হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে এক ট্রাক লবণসহ মো. হাসান নামে এক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে।

লালমনিরহাট প্রতিনিধি জানান, জেলাটিতে অধিকমূল্যে লবণ বিক্রির দায়ে ১১ ব্যবসায়ী অর্থ দণ্ড ও কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার রাতে ব্যবসায়ীদের অর্থ দণ্ড দেয়া হয়।

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, মঙ্গলবার দুপুরে জেলা শহরের বড় বাজারে গুজবকে পুঁজি করে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করার দায়ে সোনালী স্টোরের মালিক অর্জুন সাহা ও সুমন স্টোরের মালিক সুমনকে আটক করা হয়।

জামালপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে লবণ সংকটের গুজব ছড়ানোর অভিযোগে পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেলে পৌরসভার আরামনগর বড়বাজার এলাকার বাঁধন স্টোরের সামনে থেকে তাদেরকে আটক করা হয়েছে।

এছাড়া বগুড়ায় ৪৪ জন, মাদারীপুরে দুজন, চুয়াডাঙ্গায় আটজন, নীলফামারীতে দুজন, লালমনিরহাটে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

এএম/এমএস