গুজব ছড়িয়ে বেশি দামে লবণ বিক্রি, ৭ বিক্রেতার জেল-জরিমানা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৯:১২ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০১৯

গুজব ছড়িয়ে যশোরে লবণ নিয়ে কারসাজির দায়ে দুদিনে অন্তত সাতজন বিক্রেতাকে সাজা ও জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার ও বুধবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে তাদের এ সাজা দেয়া হয়।

মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে লবণের অতিরিক্ত দাম নেয়ায় তিন ব্যবসায়ীকে সাজা দেন বাঘারপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া আফরোজ।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন বাঘারপাড়ার চাড়াভিটা বাজারের ব্যবসায়ী বাদল দত্ত, মিঠুন দত্ত ও দিলীপ দত্ত। এর মধ্যে বাদল ও মিঠুনকে ছয় মাস করে ও দিলিপকে এক মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার শেখ জালাল উদ্দিন বলেন, বুধবার বেলা ১টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী নাজিব হাসান শহরের হাটখোলা রোড আটাপট্টিতে অভিযানকালে দেখতে পান অঙ্কিতা স্টোরে লবণ মজুত রেখে বেশি দামে বিক্রি করা হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজার অশোক কুমার মন্ডলকে ২০০৯ সালের জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ৩৮ ধারায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এর আগে মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে শহরের ষষ্ঠীতলায় উজ্জ্বলের দোকানে অভিযান চালিয়ে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়া মঙ্গলবার রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে যশোর শহরের দুটি প্রতিষ্ঠানে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এর মধ্যে শহরের জেলরোডের ভাই ভাই স্টোরে বেশি দামে লবণ বিক্রি করায় মালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পরে শহরের পুরাতন কসবা চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড বাজারের সোহরাবের দোকানে অভিযান চালানো হয়। সেখানে লবণের অতিরিক্ত দাম নেয়ায় এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মিলন রহমান/এএম/এমকেএইচ