প্রশিক্ষণের সময় পুলিশের ছোড়া গুলিতে বৃদ্ধ আহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি জামালপুর
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯

জামালপুরে প্রশিক্ষণের সময় পুলিশের ছোড়া গুলিতে আব্দুর রহিম (৬৬) নামে এক বৃদ্ধ আহত হয়েছেন। বাম পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনি জামালপুর জেনারেল হাসপতালে ভর্তি হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, জামালপুর জেলা পুলিশের শীতকালীন পাঁচ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের প্রথম দিনের প্রশিক্ষণের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ৩৫ বিজিবির ক্যাম্পে ফায়ারিং রেঞ্জে পুলিশের প্রশিক্ষণ চলছিল। বিকেলের দিকে পুলিশের ছোড়া গুলি ফায়ারিং রেঞ্জের সীমানা পেরিয়ে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে শহরের পাথালিয়া গুয়াবাড়িয়া এলাকায় একটি বাড়ির বাঁশের বেড়া ভেদ করে। এতে ঘরে ঘুমন্ত অবস্থায় থাকা আব্দুর রহিমের বাম পায়ে আঘাত লেগে তিনি আহত হন। আহত ওই ব্যক্তিকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত আব্দুর রহিমের মেয়ে কহিনুর জানান, বাবা জোহরের নামাজ শেষ করে বিশ্রামের জন্য বিছানায় শুয়েছিলেন। কিছুক্ষণ পর একটি গুলি এসে বাবার পায়ে লাগে। গুলিটি পুলিশের ছোড়া বলে তিনি দাবি করেন।

Jamalpur

এ ব্যাপারে হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. কেএম শফিকুজ্জামান জানান, রহিমের আঘাত বেশি গুরুতর নয়, তবে তার চিকিৎসা চলছে।

এদিকে খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. বাছির উদ্দিন ও সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সলেমুজ্জামানসহ পুলিশ কর্মকর্তারা হাসপাতালে রহিমকে দেখতে যান।

জামালপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র সাইমা হামজা সিমি জানান, রহিম আহত হওয়া ছাড়াও অতীতে একজনের মৃত্যুসহ প্রায় সময় এ ধরনের ঘটনা ঘটছে। তাই পরিকল্পিতভাবে ফায়ারিং রেঞ্জ নির্মাণের প্রয়োজন। কারণ এখন আগের তুলনায় এখানে অনেক বসতি গড়ে উঠেছে।

জামালপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: বাছির উদ্দিন বলেন, কীভাবে ঘটনাটি ঘটলো সেটা আমরা দেখছি। পাশাপাশি আহত আব্দুর রহিমের সকল চিকিৎসার ব্যবস্থা পুলিশ নিচ্ছে। এ ঘটনা শোনার পর আমরা প্রশিক্ষণ আপাতত বন্ধ রেখেছি।

আসমাউল আসিফ/আরএআর/পিআর