যশোরে মিনি ম্যারাথন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৮:২২ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯
যশোর কালেক্টরেট চত্বর থেকে শুরু হয় ম্যারাথন প্রতিযোগিতা

যশোর মুক্ত দিবসে বেসরকারি সংস্থা জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের আয়োজনে মিনি ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়েছে। পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) সহযোগতিায় অনুষ্ঠিত ম্যারাথনে ১০৩ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন।

এর মধ্যে ১৭ জন নারী প্রতিযোগী ছিলেন। শুক্রবার (০৬ ডিসেম্বর) সকাল ৮টায় যশোর কালেক্টরেট চত্বর থেকে শুরু হয় ম্যারাথন প্রতিযোগিতা। যশোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রফিকুল হাসান বেলুন উড়িয়ে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন।

শহীদ মিনার পাশ দিয়ে বিমান অফিসের সামনে দিয়ে পুলিশ লাইন হয়ে পালবাড়ি ভাস্কর্যের মোড় ঘুরে ধর্মতলা দিয়ে এসে পৌরসভার সামনের সড়ক হয়ে মুজিব সড়কে জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশন প্রধান কার্যালয়ে এসে শেষ হয় ‘যশোর মিনি ম্যারাথন’।

৮ কিলোমিটার দীর্ঘ এবারের প্রতিযোগিতায় পুরুষ বিভাগে ২৩ মিনিট ৩৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে প্রথম হয়েছেন উপশহর ডিগ্রি কলেজের মুজাহিদ শেখ। দ্বিতীয় হয়েছেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আল আমিন। আল আমিন ২৩ মিনিট ৩৯ সেকেন্ডে দৌড় শেষ করেন। ২৩ মিনিট ৫২ সেকেন্ড সময় নিয়ে তৃতীয় হয়েছেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের মনিরুল ইসলাম।

নারী বিভাগে প্রথম হয়েছেন তানজিলা। তানজিলা দৌড় শেষ করতে সময় নেন ৩৩ মিনিট ০৪ সেকেন্ড। দ্বিতীয় হয়েছেন সুরাইয়া আক্তার। সুরাইয়া ৩৩ মিনিট ২০ সেকেন্ডে ফিনিশিং পয়েন্টে পোঁছান। খাদিজা ৩৫ মিনিট ৪৫ সেকেন্ডে সময় নিয়ে তৃতীয় হয়েছেন।

সকাল ১০টায় জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশন প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যশোরের পুলিশ সুপার মঈনুল হক।

জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের সভাপতি জন এস বিশ্বাসের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- নির্বাহী পরিচালক আজাদুল কবির আরজু এবং সরকারি এমএম কলেজের ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ছোলজার রহমান।

এটি সঞ্চালনা করেন জাগরণী চক্রের পরিচালক (কর্মসূচি) মাজেদ নওয়াজ। এতে উপস্থিত ছিলেন জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের উপনির্বাহী পরিচালক- অদিতি আরজু ও পরিচালক (মাইক্রোফাইন্যান্স) আজিজুল হক প্রমুখ।

মিলন রহমান/এএম/পিআর