বিয়ে করতে এসে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি মির্জাপুর (টাঙ্গাইল)
প্রকাশিত: ০৭:১৪ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায় নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিয়ে করতে এসে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা দিয়েছেন বর জাহিদ হাসান।

শুক্রবার (০৬ ডিসেম্বর) রাতে বর জাহিদ হাসানের কাছ থেকে এ জরিমানা আদায় করেন মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. মঈনুল হক।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, শুক্রবার রাতে উপজেলার লতিফপুর ইউনিয়নের টাকিয়া কদমা গ্রামের লোকমান হোসেনের ছেলে জাহিদ হাসান একই উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের বরাটি গ্রামের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিয়ে করতে আসেন।

কনের বাড়িতে দুপুরে খাওয়া-দাওয়া শেষে সন্ধ্যায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা চলছিল। খবর পেয়ে বিয়েবাড়িতে হাজির হন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. মঈনুল হক। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ভাতগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আজহারুল ইসলাম।

বিয়েবাড়িতে উপস্থিত সবাইকে বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে অবহিত করেন তারা। পরে কনের বয়স ১৮ না হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক বিয়ে ভেঙে দেন। বাল্যবিয়ে করতে আসায় বর জাহিদ হাসানকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এছাড়া বাল্যবিয়ে দেয়া এবং না করার শর্তে উভয় পক্ষের কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়।

এস এম এরশাদ/এএম/জেআইএম