ফতুল্লায় তরুণীকে গণধর্ষণ, আটক ৫

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০১:৪৮ এএম, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ১৮ বছর বয়সী কয়েল ফ্যাক্টরির নারী শ্রমিককে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় বখাটে কয়েকজন যুবকের বিরুদ্ধে। এ সময় নারীর সাথে থাকা তার বন্ধুকে মারধর করে টাকা পয়সা ও মোবাইল নিয়ে যায়।

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) রাত ৮টার দিকে ফতুল্লার বটতলা এলাকায় শাহাজালাল রোলিং মিল সংলগ্ন মসজিদ গলিতে এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত রাসেল, আলামীন, রবিন ও সুমন, রুবেল নামের ৫ বখাটে যুবককে আটক করেছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তরুণী পেটের দায়ে পটুয়াখালীর বাউফল থানার নৌ-মালা এলাকা হতে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার গোগনগর ফকির বাড়ি এলাকার একটি বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসাবে বসবাস করে কাদিরের মালিকানাধীন স্থানীয় একটি কয়েল ফ্যাক্টরিতে চাকরি করে।

তিনি জানান, সোমবার রাত ৮টার দিকে কারখানায় কাজ শেষে ছুটির পর মালিকের সাথে বাড়ি ফেরার পথে তাদের পথরোধ করে এলাকার বখাটে যুবক রাসেলসহ তার আরও ৪-৫ যুবক। পরে সন্ত্রাসী আলামীন কয়েল কারখানার মালিককে মারধর করে সেখান থেকে তাড়িয়ে দিয়ে ওই নারী শ্রমিককে রবিন ও সুমনের হাতে টাকার বিনিময়ে তুলে দেয়। এরপর ৪-৫ জন মিলে ওই তরুণীকে একটি নির্জন বাড়িতে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

তিনি আরও জানান, ধর্ষণের ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আর ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মো. শাহাদাত হোসেন/এমআরএম