কাগজপত্র ঠিক থাকলে ফুল, না থাকলেই মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০৮:৫৮ পিএম, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

সিলেটে নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরের দ্বিতীয় দিনে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ১৪টি মোটরসাইকেলের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। একই সঙ্গে ৫টি মোটরসাইকেলকে ডাম্পিংয়ের জন্য পুলিশ লাইন্সে পাঠানো হয়েছে।

মহানগর পুলিশের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা থেকে এ সব মামলা রুজু করা হয়। এ সময় ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে যানবাহনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সঠিক হওয়ায় এবং হেলমেট পরিধানকারী মোটরসাইকেল আরোহীদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। কাগজপত্র ঠিক না থাকলে দেয়া হয়েছে মামলা।

কর্মসূচি চলাকালে মাইকিংয়ের মাধ্যমে অসচেতনভাবে রাস্তা পারাপার, মোবাইল ফোনে কথা বলা অবস্থায় রাস্তা পারাপার না হওয়া, ফুটপাত ব্যবহার করা, রাস্তার ডান পাশ দিয়ে চলা, রাস্তা পারাপারে জেব্রা ক্রসিং ব্যবহার করা, সময় বাঁচাতে গিয়ে ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী হয়ে গাড়িতে না ওঠা, মোটরসাইকেলে চালক ব্যতীত একজনের বেশি আরোহী বহন না করা, চালক ও আরোহী উভয়েই সঠিকভাবে হেলমেট ব্যবহার করা, বৈধ কাগজপত্র ও ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত মোটরসাইকেল না চালানো, বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল না চালানো, উচ্চ শব্দকারী সাইলেন্সার ব্যবহার করে পরিবেশ দূষণ না করা, মোটরসাইকেলের লুকিং গ্লাস না খোলা এবং উল্টোপথে গাড়ি না চালানোর বিষয়ে সচেতনতামূলক নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

flower

এ সময় সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সাল মাহমুদ, উপ-কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর) জ্যোতির্ময় সরকার, সহকারী কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর), মো. আশিদুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ট্রাফিক-দক্ষিণ) মো. মুহিবুর রহমান, টিআই (প্রশাসন) মো. হানিফ মিয়া, টিএসআই জাহাঙ্গীর হোসেন, টিএসআই মো. মোশারফ হোসেন, টিএসআই মো. ওয়াহেদুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ছামির মাহমুদ/আরএআর/জেআইএম