‘জয় বাংলা’ স্লোগান না থাকলে নিবন্ধন বাতিল হওয়া উচিত : কৃষিমন্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৮:৫২ পিএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় জয় বাংলা ছিল আমাদের রণধ্বনি। এ স্লোগান দিয়ে যুদ্ধ করে আমরা পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীকে পরাজিত করে বিজয় অর্জন করেছি। সম্প্রতি হাইকোর্ট জয় বাংলাকে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় টাঙ্গাইল পৌরসভা আয়োজিত হানাদারমুক্ত দিবসের অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর ঘোষণাপত্রে 'জয় বাংলা' স্লোগান যাদের থাকবে না তাদের নিবন্ধন বাতিল হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি। তাই নির্বাচন কমিশনের উচিত নিবন্ধিত দলগুলোকে চিঠি দিয়ে তাদের ঘোষণাপত্রে জয় বাংলা স্লোগান অন্তর্ভুক্ত করতে বলা।

Tangail-pic-3

কৃষিমন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক বলেন, নয় মাস যুদ্ধ শেষে ১১ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধারা টাঙ্গাইলকে হানাদারমুক্ত করেছিলেন। সেই যুদ্ধে একজন কোম্পানি কমান্ডার হিসেবে তিনি আগের দিন রাতে টাঙ্গাইল শহরে প্রবেশ করেন এবং সেখানে স্বাধীন বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেছিলেন।

টাঙ্গাইলের পৌর মেয়র জামিলুর রহমান মিরনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম ভিপি জোয়াহের, টাঙ্গাইল-৫ সদর আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ ছানোয়ার হোসেন, টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর) আসনের সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য খন্দকার মমতা হেনা লাভলী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান স্মৃতি প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন উপমহাদেশের খ্যাতনামা কণ্ঠশিল্পী মিতালী মুখার্জি।

আরিফ উর রহমান টগর/এমএএস/এমকেএইচ