খুলনায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ০৩:০৪ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০২০
প্রতীকী ছবি

খুলনার বটিয়াঘাটায় রিপন রায় (১৯) নামে এক যুবককে হত্যার দায়ে ৬ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়া মামলা থেকে ২ জনকে খালাস দেয়া হয়েছে। সোমবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে খুলনার জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. সাইফুজ্জামান হিরো এ রায় ঘোষণা করেন।

রিপন রায় বটিয়াঘাটা উপজেলার গড়িয়াডাঙ্গার রাম প্রসাদ রায়ের ছেলে। রিপন সিডি দোকানের ব্যবসা করতো।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, বটিয়াঘাটা উপজেলার বৃত্তি শলুয়া এলাকার নুর মোহাম্মদের ছেলে মনিরুজ্জামান ঘরামী, পারশেমারির মজিদ সরদারের ছেলে হুমায়ুন সরদার, গাওঘরার আমজাদ সরদারের ছেলে জাহাঙ্গীর সরদার, নুর শেখের ছেলে এনামুল শেখ, খালেক শেখের ছেলে কাদের শেখ ও সিরাজ শেখের ছেলে পিন্টু শেখ। খালাশপ্রাপ্ত দু'জন হলেন, একই এলাকার হুমায়ুন কবির বাবু ও হান্নান মল্লিক।

আদালতের উচ্চমান বেঞ্চ সহকারী মো. সায়েদুল হক শাহীন নথির বরাত দিয়ে জানান, ২০০৭ সালের ১ এপ্রিল রাতে বটিয়াঘাটা উপজেলার গড়িয়াডাঙ্গার রাম প্রসাদ রায়ের ছেলে রিপন তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান (সিডির দোকান) থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। আসামিরা পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যার পর লাশ ফেলে রেখে যায়। পরদিন সকালে বৃত্তি খলশীবুনিয়া এলাকার রাস্তার পাশে তার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয়। বটিয়াঘাটা থানা পুলিশ রিপনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এ ঘটনায় ২ এপ্রিল রিপনের বাবা বাদী হয়ে বটিয়াঘাটা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন (নং০১)। ২০১০ সালের ২০ জুলাই পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) এসআই খান মাহবুবুর রহমান ৮ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌশুলি ছিলেন বিশেষ পিপি আরিফ মাহমুদ লিটন।

আলমগীর হান্নান/এমএএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]