ঘরে ঢুকে তিন সন্তানের মাকে চারজনের গণধর্ষণ, পাহারায় চারজন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৬:৩২ পিএম, ০১ জুন ২০২০
ফাইল ছবি

বরিশালের হিজলা উপজেলার হিজলা-গৌরবদী ইউনিয়নের কাকুড়িয়া এলাকায় ঘরে ঢুকে তিন সন্তানের জননীকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ সোমবার (০১ জুন) দুপুরে বাদী হয়ে হিজলা থানায় মামলা করেছেন। মামলায় স্থানীয় আট যুবককে আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- কাকুড়িয়া গ্রামের বারেক জমাদ্দার, জাকির হোসেন, সুমন রাঢ়ি, আনিস খান, মনির রাঢ়ি ও আল আমিন। তাদের বয়স ২৮ থেকে ৩২ বছরের মধ্যে।

নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর বাড়ি একই এলাকায়। তার স্বামী ঢাকায় নিরাপত্তাপ্রহরীর চাকরি করেন। ওই গৃহবধূ তিন সন্তান নিয়ে গ্রামের বাড়ি থাকেন।

মামলার বরাত দিয়ে হিজলা থানা পুলিশের ওসি অসীম কুমার সিকদার বলেন, শনিবার রাতে খাবার খেয়ে সন্তানদের নিয়ে ঘুমাতে যান গৃহবধূ। রাত ১০টার দিকে দরজায় ধাক্কানোর শব্দ পেয়ে ঘুম ভেঙে যায় তার। দরজা খুলে দেখেন আটজন যুবক দাঁড়িয়ে আছেন। এরপর চারজন যুবক ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন। বাকি চারজন যুবক পাহারা দিচ্ছিলেন। গণধর্ষণ শেষে কাউকে কিছু না বলতে হুমকি দিয়ে চলে যান তারা। রোববার ঘটনা জানাজানি হলে অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ওসি অসীম কুমার সিকদার আরও বলেন, গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ সোমবার দুপুরে বাদী হয়ে আটজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এর মধ্যে রোববার রাতে গ্রেফতার হওয়া ছয়জনকে ওই মামলায় আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকি দুই আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

হিজলা-গৌরবদী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মো. আলাউদ্দিন দফাদার বলেন, কাকুড়িয়া গ্রামটি বিচ্ছিন্ন। মেঘনা নদী বেষ্টিত একটি দুর্গম চরের নাম কাকুড়িয়া। ওই নারী তিন সন্তান নিয়ে সেখানে থাকেন। চাকরির সুবাদে তার স্বামীকে ঢাকায় থাকতে হয়। এ সুযোগে ওই নারীকে গণধর্ষণ করা হয়।

সাইফ আমীন/এএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]