নদী-পুকুরে ডুবে আট শিশুসহ ৯ জনের করুণ মৃত্যু

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫৯ পিএম, ০৩ জুন ২০২০
ফাইল ছবি

নোয়াখালীর সেনবাগে দুই শিশু, যশোরের অভয়নগরে যমজ শিশু ও চৌগাছায় এক শিশু, টাঙ্গাইলে এক শিশু, বগুড়ায় দুই শিশু ও নীলফামারীতে এক তরুণের করুণ মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার সকাল থেকে বিভিন্ন সময় তাদের মৃত্যু হয়েছে।বিস্তারিত পড়ুন জাগো নিউজের পাঠানো সংবাদে-

নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, জেলার সেনবাগ উপজেলায় পুকুরের পানিতে ডুবে নাছিফা আক্তার (৪) ও ইয়াসমিন আক্তার (১০) নামের দুই শিশু মারা গেছে। বুধবার দুপুরে ৭নং মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ রাজারামপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে নাছিফা ওই গ্রামের ফরায়েজী বাড়ির মো. মাইন উদ্দিনের মেয়ে ও ইয়াসমিন তাদের কাজের মেয়ে। তার বাড়ি লক্ষ্মীপুরে বলে জানাগেছে। নাছিফার বাবা মাইন উদ্দিন ঢাকায় পেট্রোবাংলায় কর্মরত।

স্থানীয়রা জানায় নাছিফা ও ইয়াসমিন দুপুরে বাড়ির পার্শ্ববর্তী পুকুর পাড়ে খেলা করতে গিয়ে অসাবধানতা বশত পুকুরের পানিতে পড়ে ডুবে যায়। দীর্ঘক্ষণ তাদের না পেয়ে পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করে এক পর্যায়ে পুকুরে তাদের ভাসতে দেখে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন।দুই শিশুর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এ ঘটনায় সেনবাগ থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল বাতেন মৃধা জানান, বিষয়টি তিনি অবহিত নয়, তবে তিনি খোঁজখবর নিচ্ছেন।

যশোর প্রতিনিধি জানান, জেলার অভয়নগরে খেলা করতে গিয়ে পানিতে ডুবে দুই বছর বয়সী যমজ দুই ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দুপুরে উপজেলার সিদ্ধিপাশা ইউনিয়নের সিদ্ধিপাশা গ্রামে মর্মান্তিক এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

মৃত হাসান ও হুসেইন সিদ্ধিপাশা গ্রামের মাজেদ শেখের ছেলে।

মাজেদ শেখের ভাই স্থানীয় ইউপি সদস্য শেখ হাফিজুর রহমান জানান, প্রতিদিনের মতো বুধবার বাড়ির পাশে খেলা করছিল দুই ভাই হাসান-হুসেইন।

দুপুরের দিকে দুই ছেলেকে না পেয়ে তাদের মা খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। এক পর্যায়ে বাড়ির পাশে ডোবার মধ্যে দুই ছেলেকে ভেসে থাকতে দেখেন।তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দু’জনকেই মৃত ঘোষণা করেন। যমজ দুই ভাইয়ের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এ ঘটনায় অভয়নগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম বলেন, দুই বছর বয়সী দুই ভাইয়ের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

অপরদিকে, চৌগাছা উপজেলায় বিলের পানিতে ডুবে আমীর হামজা (৬) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার মাঠচাকলা গ্রামের বিলে এ ঘটনা ঘটে।

একইসাথে শিশির (৭) নামে আরেক শিশু পানিতে ডুবে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত আমীর হামজা মাঠচাকলা গ্রামের দ্বীন মোহাম্মদের ছেলে।আহত শিশির ওই গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে।

স্বজনরা জানায়, সকাল ১০টার দিকে দুই শিশু বাড়ির পাশের বিলের পানিতে খেলছিল। এসময় আমীর হামজা বিলের একপাশে খুঁড়ে রাখা গর্তে পড়ে যায়। স্থানীয়দের সহায়তায় পরিবারের সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমীর হামজাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত শিশিরকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নুজহাত নুয়েরী সাওসান জানান, হাসপাতালে আনার আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। তবে আরেক শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি জানান, জেলার ঘাটাইলে পানিতে ডুবে চার বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দুপুরে উপজেলার ঘাটাইল সদর ইউনিয়নের শিমলা পশ্চিম পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু ওই এলাকার মো. শাহ আলমের ছেলে।

সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. শিহাব উদ্দিন সুইট জানান, ওই বাড়ির পাশে নিহত শিশুসহ চার পাঁচজন শিশু খেলা করছিল। তাদের মধ্যে একজনের খেলনা গাড়ি পাশের ডোবায় পড়ে যায়। গাড়িটি তোলার জন্য শিশুটি পানিতে নামে। পরে শিশুটি পানিয়ে তলিয়ে যায়।

কিছুক্ষণ পর বাকি শিশুদের ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বগুড়া প্রতিনিধি জানান, জেলার গাবতলী উপজেলার কাগইল ইউনিয়নের শাহাপুর উত্তরপাড়া গ্রামে নিখোঁজের ৫ ঘণ্টা পর বাড়ির পাশে ডোবা থেকে ২ শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

তারা কাগইল ইউনিয়নের শাহাপুর উত্তরপাড়া গ্রামের ফুল মিয়ার ছেলে সৌরভ (৬) ও একই পাড়ার সোহেল ইসলামের শিশু ছেলে কাউছার (৮)। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে তারা নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজি করার পর তাদেরকে না পাওয়ায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে এলাকাবাসী বাড়ির পাশের ডোবায় তাদের লাশ দেখতে পায়।

গাবতলী মডেল থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নুরুজ্জামানের সাথে কথা বললে তিনি জানান, সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। হৃদয় বিদারক এ ঘটনায় এলাকাবাসী ও নিহত ২ শিশুর পরিবারের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

নীলফামারী প্রতিনিধি জানান, জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলায় চারালকাটা নামক নদীতে গোসল করতে গিয়ে লিমন (১৮) নামের এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার বেলা ৩টার দিকে উপজেলার নিতাই ইউনিয়নের মুশরত পানিয়াল পুকুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
লিমন ওই গ্রামের সাবেক সেনা সদস্য বাবুল মিয়ার ছেলে।

ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফারুকুজ্জামান ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার সময় এলাকায় বৃষ্টি হচ্ছিল। ওই সময় লিমন তার এক বন্ধুসহ নদীর সাইফন এলাকায় গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়া হয়।

পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তার লাশ উদ্ধার করে। ফায়ার সার্রেসের স্টেশন অফিসার রেদওয়ানুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এমএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]