নেতাকর্মীদের নিয়ে রাস্তা সংস্কার করলেন ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৯:৩১ এএম, ১৩ জুলাই ২০২০

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে স্থানীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে রাস্তা সংস্কার করলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস। রোববার (১২ জুলাই) বিকেলে সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও স্থানীয় নেতাকর্মীদের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে ওই সড়কের ভুক্তভোগীরা তাদের প্রশংসা করেন।

এর আগে শুক্রবার (১০ জুলাই) বিকেল থেকে কাজ শুরু করে রোববার (১২ জুলাই) পর্যন্ত এলাকাবাসীর দুর্ভোগ কমাতে মেরামত কার্যক্রম অব্যাহত রাখেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

গৌরীপুর উপজেলার মইলাকান্দা ইউনিয়নের শ্যামগঞ্জ রেলওয়ে এলাকার রাস্তার দুর্ভোগের বিষয়টি ফেসবুকে প্রচার হলে মানুষের দুর্ভোগ ও ভাঙা রাস্তা মেরামত করতে তাৎক্ষণিক উদ্যোগ নেন ঢাবির ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস। খবর পেয়ে স্থানীয় অর্ধশত ছাত্রলীগের নেতাকর্মী স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত কাজে অংশ নেন।

উপজেলার মইলাকান্দা ইউনিয়নের শ্যামগঞ্জের সন্তান মো. মারিয়াম জামান খান সোহান তার ফেসবুকে দুর্ভোগের বিষয়টি তুলে ধরেন। তিনিও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টারদা সূর্যসেন হলের ভিপি।

তিনি বলেন, ছোট ভাইদের ফেসবুক স্ট্যাটাসে স্থানীয়দের দুর্ভোগের বিষয়টি চোখে পড়লে ঘটনাস্থলে ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস উপস্থিত হন। পরে সেখানে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. মোফাজ্জল হোসেন খানও হাজির হন। স্থানীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে রাস্তার সংস্কার কাজ শুরু করলে সাধারণ মানুষও এতে যোগ দেন।

মারিয়াম জামান খান সোহান বলেন, রাস্তা মেরামত শেষ করতে আরও দুই-তিনদিন সময় লাগবে। রাস্তায় বালি, ইটের খোয়া, পাথর ফেলা হচ্ছে। এরপর রোলার দিয়ে যানবাহন ও মানুষের চলাচলের উপযোগী করে তোলা হবে।

lig

এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মোফাজ্জল হোসেন খান, আমিও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। আজকের ছাত্রলীগ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ছাত্রলীগ। ওরা আর্তমানবতার সেবায় নিবেদিত, আমি আজ ছাত্রলীগের এমন কাজে গর্বিত।

তিনি আরও বলেন, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা লুঙ্গি পরে কোমর বেঁধে রাস্তা মেরামতের কাজ করছেন। ওদের কাজ দেখে এলাকাবাসীও এগিয়ে আসছেন। এলাকাবাসীও তাদের কাজের প্রশংসা করেছেন।

ওই এলাকার ভুক্তভোগীরা জানান, ভাঙা রাস্তাটি মেরামত হলে শতাধিক পরিবার জলাবদ্ধতা থেকে রক্ষা পাবেন। হাজার হাজার এলাকাবাসী ও যানবাহন চলাচলে দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পাবে।

এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]