দুই হাজার কেজি নিষিদ্ধ পিরানহা জব্দ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৮:২৪ পিএম, ১৪ জুলাই ২০২০

ময়মনসিংহের ভালুকায় অভিযান চালিয়ে দুই হাজার কেজি নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ জব্দ করা হয়েছে। একই সঙ্গে রূপচাঁদা বলে নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ বিক্রির দায়ে তিন মাছ ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়েছে। অধিক লাভের আশায় নিষিদ্ধ এই মাছ উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত তিনজন গাঢাকা দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) বিকেলে র‍্যাব-১৪ এর সিনিয়র এএসপি জুনাইদ আফ্রাদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

র‍্যাব জানায়, সকাল ৬টা থেকে ৯টা পর্যন্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিনিয়র এএসপি জুনাইদ আফ্রাদ ও এএসপি তাসলিম হুসাইনের নেতৃত্বে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রুমেন শর্মা ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা তারেক রহমানের উপস্থিতিতে ভালুকার মাছ বাজারে অভিযান চালানো হয়। এ সময় নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ বিক্রির দায়ে ব্যবসায়ী মামুদ রানাকে পাঁচ হাজার টাকা, শ্রী রবেন চন্দ্র বর্মণকে তিন হাজার ও রুকন উদ্দিনকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তিন মাছ উৎপাদনকারী ফার্মের মালিক সবুজ মণ্ডল, আব্দুল সামাদ মণ্ডল ও মিলন মণ্ডল পলাতক।

jagonews24

র‍্যাব-১৪ এর সিনিয়র এএসপি জুনাইদ আফ্রাদ জানান, সারাদেশে রূপচাঁদার নামে অসাধু ব্যবসায়ীরা ক্ষতিকর নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ বিক্রি করছে। এই মাছটি মূলত আমাজন নদীর ভয়ংকর মাছ। মানুষখেকো হিসেবেও এই মাছটি পরিচিত। পিরানহা মাছ তাদের ক্ষুরধার দাঁত দিয়ে মাত্র কয়েক মিনিটে মানুষের হাড় থেকে মাংস আলাদা করে ফেলে। বেশি লাভের আশায় সাধারণ মানুষকে বোকা বানিয়ে এই মাছ বিক্রি করা হয়। পলাতক তিনজনের বিরুদ্ধে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা বাদী হয়ে ভালুকা থানায় মামলা করবেন বলেও জানান তিনি।

আরএআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]