ছিনিয়ে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে হত্যার ঘটনায় যুবক আটক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাভার (ঢাকা)
প্রকাশিত: ০২:১৫ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০
ছবিঃ নিহত নীলা রায়

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ভাইয়ের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে স্কুলছাত্রী নীলা রায়কে (১৪) ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সেলিম পালোয়ান (২৮) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে সাভার পৌরসভার ব্যাংক কলোনি মহল্লা থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটক সেলিম পালোয়ান পরিবারের সঙ্গে ব্যাংক কলোনিতে স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা মামলার প্রধান আসামি মিজানুর রহমানের (২০) পাশের বাসায় থাকেন। বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সেলিমকে ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে সাতদিনের রিমান্ড চাইবে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, মিজানের সঙ্গে সেলিমের ঘনিষ্ঠতা আছে। নীলাকে হত্যার আগে মুঠোফোনে মিজানের সঙ্গে সেলিম পালোয়ানের অনেকবার কথা হয়েছে।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, নীলা হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে- এমন সন্দেহে সেলিম পালোয়ানকে আটক করা হয়েছে। মিজানসহ অন্য আসামিদের গ্রেফতারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক দল কাজ করছে। খুব দ্রুতই তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

নীলার পরিবারের অভিযোগ, প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় নীলাকে হত্যা করেন মিজান। তিনি একই এলাকার ব্যবসায়ী আবদুর রহমানের ছেলে। স্থানীয় একটি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী তিনি। এর আগে একবার টেস্ট পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়া তিনি এইচএসসি পরীক্ষা দিতে পারেননি। গত রোববার ( ২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ভাইয়ের সঙ্গে রিকশায় করে হাসপাতালে যাওয়ার পথে নীলাকে ছিনিয়ে নিয়ে বখাটে মিজান ছুরিকাঘাতে হত্যা করেন। নীলা স্থানীয় অ্যাসেড স্কুলের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

এ ঘটনায় নীলার বাবা নারায়ণ রায় সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে সাভার মডেল থানায় মিজান, তার বাবা আবদুর রহমান ও মা নাজমুন্নাহার সিদ্দিকাসহ অজ্ঞাতনামা আরও চারজনকে আসামি করে মামলা করেন। তবে হত্যাকাণ্ডের তিনদিনেও মামলার মূল আসামি মিজানকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

আরএআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]