আটকে রেখে কিশোরীকে ধর্ষণ, গির্জার ফাদারের শাস্তি দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৪:১৬ পিএম, ০১ অক্টোবর ২০২০

রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা গির্জায় তিনদিন আটকে রেখে এক কিশোরীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত ফাদার প্রদীপ গ্যাগরির শাস্তির দাবি উঠেছে।

বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) দুপুরের দিকে নগরীর সাহেববাজার এলাকায় মানববন্ধন করে এ দাবি জানিয়েছে আদিবাসী ছাত্র পরিষদ।

আদিবাসী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি নকুল পাহানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক তরুণ মুন্ডা, রাজশাহী কলেজ কমিটির সভাপতি সাবিত্রী হেমব্রম, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার মাহাতো, দিলীপ পাহান প্রমুখ।

মানববন্ধনে একাত্মতা জানিয়ে বক্তব্য দেন জাতীয় আদিবাসী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক গনেশ মার্ডি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিমল রাজোয়াড়, দফতর সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র হেমব্রম, রাজশাহী জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুসেন কুমার শ্যামদুয়ার প্রমুখ।

এতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেন রাজশাহীর বিশিষ্ট সাংবাদিক ও মুক্তিযোদ্ধা প্রশান্ত কুমার সাহা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আমিরুল ইসলাম কনক, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির রাজশাহী জেলা সভাপতি শাহাজাহান আলী বরজাহান প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা কিশোরীর ওপর পাশবিকতা চালানোর দায়ে গ্রেফতার ফাদারের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন। একই সঙ্গে এ ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করায় মুন্ডুমালা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কমেল মার্ডিরও শাস্তি দাবি করেন।

বক্তারা বলেন, প্রভাবশালী কমেল মার্ডির প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় ধর্ষক ফাদার প্রদীপ ঘটনাস্থল থেকে পালাতে সক্ষম হন। তিনিই কথিত সালিশ করে বিষয়টা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন।

বক্তারা ভুক্তভোগী আদিবাসী কিশোরীর এবং তার পরিবারের নিরাপত্তারও দাবি জানান।

ফেরদৌস সিদ্দিকী/আরএআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]