ছেলেকে বাঁচাতে পানিতে ঝাঁপ দিলেন মা, মিলল দুইজনের লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০৪:২৭ পিএম, ০১ অক্টোবর ২০২০
রংপুর নগরীর জুম্মাপাড়ায় পানিতে ডুবে মা-ছেলের মৃত্যু

রংপুর নগরীর জুম্মাপাড়ায় সৃষ্ট জলাবদ্ধতার পানিতে ডুবে মা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০১ অক্টোবর) দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন- নগরীর শালবন মিস্ত্রিপাড়া এলাকার জসিম উদ্দিনের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৪৮) এবং তার ছেলে রিপন (৮)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রংপুরের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় জলাবদ্ধতায় নগরীর মিস্ত্রিপাড়া থেকে জুম্মাপাড়া যাওয়ার প্রায় চার কিলোমিটারের রাস্তা হাঁটুপানিতে ডুবে আছে।

এর মাঝে প্রায় দুই কিলোমিটার সড়কের দুই পাশে নিচু এলাকা হওয়ায় পানি থৈ থৈ অবস্থা। বিকল্প রাস্তা দিয়ে অনেক দূর ঘুরে যেতে হয় গন্তব্যে। এজন্য এলাকাবাসী মাত্র চার ফিট প্রশস্ত একটি সরু রাস্তা দিয়ে চলাচল করছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মা রোকেয়া বেগম ছোট ছেলে রিপনকে সঙ্গে নিয়ে হাঁটুপানি মাড়িয়ে বড় ছেলে রোহান মিয়াকে মাদরাসায় পৌঁছে দেয়ার জন্য যাচ্ছিলেন। এ সময় বড় ছেলে পা পিছলে গভীর পানিতে পড়ে যায়।

তখন ছোট ছেলেকে হাঁটুপানিতে রেখে বড় ছেলেকে বাঁচাতে মা রোকেয়া পানিতে ঝাঁপ দিয়ে উদ্ধার করেন। পরক্ষণেই ছোট ছেলে অপর পাশে পানিতে পড়ে ডুবে যায়। তখন তাকে বাঁচাতে ঝাঁপ দেন মা। এরপর পানি থেকে ছেলে ও মা উঠতে পারেননি। পরে এলাকাবাসী খোঁজাখুঁজির পর তাদের মরদেহ উদ্ধার করেন।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেলে নিয়ে যায়। চিকিৎসার জন্য বড় ছেলেকে মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মা ও ছেলের মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এসআই) স্বপন রায়।

জিতু কবীর/এএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]