খুনি ভাড়া করলেন মা, ছেলেকে হত্যা করে লাশ ফেলল নদীতে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৫:১২ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০২০
নিহত পারভেজ ও তার মা

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় স্কুলছাত্র পারভেজ মোশাররফ (১৫) হত্যার ঘটনায় মাসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৪।

নিহত পারভেজ উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারচর উত্তরপাড়া এলাকার প্রবাসী মঞ্জুরুল হকের ছেলে। মরিচারচর উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল পারভেজ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মরিচারচর উত্তরপাড়া এলাকার এমদাদুল হক (৩৮), নিহত পারভেজের মা রোজিনা আক্তার (৩০), মো. গণি মিয়া (৪৫), সুলতান উদ্দিন (৪০) ও রুহুল আমিন (৫৮)।

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) ময়মনসিংহ র‍্যাব-১৪-এর কার্যালয় থেকে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। রোববার বেলা ১১টার দিকে মরিচারচর ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে স্কুলছাত্র পারভেজের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

jagonews24

গ্রেফতারকৃত আসামিরা

এ ঘটনায় সোমবার নিহত পারভেজের চাচা নুরুল আমীন বাদী হয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। বুধবার মধ্যরাতে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে নিহতের মাসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।

ময়মনসিংহ র‍্যাব-১৪-এর মিডিয়া অফিসার ও সহকারী পুলিশ সুপার জোনাঈদ আফ্রাদ বলেন, গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন পারভেজের মা রোজিনা আক্তারের সঙ্গে একই গ্রামের এমদাদুল হকের পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলছিল।

মায়ের পরকীয়ার বিষয়টি জেনে যাওয়ায় রোজিনা ও তার পরকীয়া প্রেমিক এমদাদুল হক মোশাররফকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী গণি মিয়া, সুলতান উদ্দিন ও রুহুল আমিনকে টাকার বিনিময়ে ভাড়া করেন। এরপর মোশাররফকে হত্যা করে মরদেহ ব্রহ্মপুত্র নদে ফেলে দেন ভাড়াটে খুনিরা।

বিকেলে গ্রেফতারকৃতদের ঈশ্বরগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান র‍্যাব-১৪-এর মিডিয়া অফিসার ও সহকারী পুলিশ সুপার জোনাঈদ আফ্রাদ।

এএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]