ময়মনসিংহে সাড়ে চার বছরের শিশুকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৯:০৩ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২০
গ্রেফতার সেলিম মিয়া

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় সাড়ে চার বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে সেলিম মিয়াকে (৪৫) এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৪।

গ্রেফতারকৃত সেলিম উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের কডোর মার্কেট এলাকায় মুদির দোকান করেন। তিনি ওই এলাকার মৃত তাহের মুন্সির ছেলে।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) দিবাগত রাতে জেলার গফরগাঁও উপজেলার গরুরহাট বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

রোববার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে ময়মনসিংহ র‍্যাব-১৪ কার্যালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তাকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

এর আগে রোববার (১১ অক্টোবর) দুপুরে ভালুকা উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের কডোর মার্কেটের এলাকায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) রাতে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে সেলিম মিয়াকে আসামি করে ভালুকা থানায় মামলা করেন।

র‍্যাব-১৪-এর সিনিয়র এএসপি সমীর সরকার বলেন, ধর্ষক সেলিম উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের কডোর মার্কেট এলাকায় বিয়ে করে শ্বশুরবাড়িতে ঘরজামাই হিসেবে থাকেন। বাড়ির ভেতরে একটি মুদির দোকান করেন সেলিম।

রোববার দুপুরে দোকানে চকোলেট কিনতে যায় শিশুটি। একপর্যায়ে সেলিম শিশুকে খাবারের লোভ দেখিয়ে তার দোকানের ভেতর নিয়ে ধর্ষণ করে।

পরে শিশুকে কাউকে কিছু না বলার জন্য ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। শিশুটি বাড়িতে ফিরে অসুস্থ হয়ে পড়লে মায়ের জিজ্ঞাসাবাদে সেলিম মিয়ার নাম বলে।

পরদিন সোমবার (১২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন বিষয়টি জানতে পেরে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ও শিশুটিকে উদ্ধার করে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই শিশুকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

এএসপি সমীর সরকার আরও বলেন, গ্রেফতারকৃত সেলিম প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শিশুকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। সেলিমকে ভালুকা থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

এএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]